বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিঃ ছাত্র ফ্রন্ট বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্যোগে আজ বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মৌলবাদ-জঙ্গিবাদী
তৎপরতা বন্ধ ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিত করার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মানববন্ধন চলাকালীন সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক অরূপ দাস শ্যাম ও পরিচালনা করেন
সাধারণ সম্পাদক অভিমিতা স্বর্ণা। বক্তব্য রাখেন আহসান উল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী অভিজিৎ ভদ্র ও গ্রীন
ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী শফিকুল ইসলাম, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ঢাকা নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক শরীফুল চৌধুরী।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, গণতান্ত্রিক শিক্ষাব্যব¯’ার অপরিহার্য শর্ত হলো শিক্ষার গণতান্ত্রিক পরিবেশ। প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে
ন্যূনতম সেই পরিবেশ নেই। শিক্ষার্থীদের মত প্রকাশের কোনো স্বাধীনতা নেই, রাজনীতি চর্চার অধিকার নিষিদ্ধ। সাংস্কৃতিক
কর্মকান্ডও নেই। কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকলেও তা নিয়ন্ত্রিত। গণতান্ত্রিক পরিবেশ, শিক্ষা ও শিক্ষার্থীদের অধিকার রক্ষার জন্য ছাত্রদের
রাজনীতি চর্চার অধিকার থাকলে বিভিন্ন মত এবং আদর্শের মিথস্ক্রিয়া থেকে একজন শিক্ষার্থী সত্যিকারের আদর্শ বেছে নেয়ার সুযোগ
পেত। বদ্ধ জলাশয়ে যেমন শ্যাওলা জন্মে তেমনি অগণতান্ত্রিক পরিবেশই প্রতিক্রিয়াশীল আদর্শ প্রসারের ঊর্বর ক্ষেত্র তৈরি করছে।
বিকাশের স্বাভাবিক পথ না থাকায় বিকৃতি তথা উগ্রবাদের দিকে আকৃষ্ট হচ্ছে। এই প্রতিক্রিয়াশীলতার প্রতিষেধক হিসেবে কাজ
করতে যে যুক্তিবোধ-মানবিক বোধ তা গড়ে তোলার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো আয়োজন নেই। ইতিহাস-দর্শন-সাহিত্য অর্থাৎ মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞানের বিষয়গুলো এসব বিশ্ববিদ্যালয়ে উপেক্ষিত। মুনাফার লোভে তথাকথিত বাজারি বিষয়গুলোই কেবল
পড়ানো হয়। এর ফলে শিক্ষার্থীরা ব্যবসা শিক্ষা বা বিজ্ঞানের কারিগরি দিক জানলেও জগত জীবন ও সমাজের বিভিন্ন বিষয়ে
কার্যকারণ সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করে না । ফলে পুঁজিবাদী সমাজসৃষ্ট অভাব-দারিদ্র-বৈষম্য এর উপজাত হতাশার কার্যকারণ ধরতে না
পেরে মৌলবাদী আদর্শের দিকে ঝুঁকছে। তাই শুধু মৌলবাদ-জঙ্গিবাদ শুধু বিশ্ববিদ্যালয়ের নজরদারি বৃদ্ধি করে বন্ধ করা যাবে না।
যে শিক্ষার মধ্য দিয়ে তা জন্ম লাভ করছে তাকেই সমূলে উৎপাটিত করতে হবে।