গ্যাসের দাম না বাড়াতে গণঅবস্থান-সমাবেশ

যুগবার্তা ডেস্কঃ গণশুনানীর তথ্য ও যুক্তি উপেক্ষা করে গ্যাসের দাম বৃদ্ধির অপতৎপরতা বন্ধ ও গ্যাসের দাম না বাড়াতে বিইআরসি ও সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দেশের বাম-প্রগতিশীল রাজনীতিক, জ্বালানী বিশেষজ্ঞ ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।
বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কাওরান বাজারস্থ বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেশন কমিশন (বিইআরসি)’র সামনে অনুষ্ঠিত গণঅবস্থান থেকে এই আহ্বান জানানো হয়। অযৌক্তিকভাবে গ্যাসের দাম বাড়ালে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয় অবস্থান সমাবেশ থেকে।
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কেন্দ্রীয় নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত গণঅবস্থান-সমাবেশে বক্তব্য রাখেন লেখক-কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, জ্বালানী বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক এম. শাসমুল আলম, প্রকৌশলী বিডি রহমত উল্লাহ, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকী, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুস সাত্তার, গণমুক্তি ইউনিয়নের মীর রেজাউল আলম, সিএনজি এসোসিয়েশনের মো. ফজলুল হক, মুক্তিযোদ্ধা মো. কামাল হোসেন, কাঠাল বাগানের বাসিন্দা জাহানারা বেগম, ফিরোজ আহমেদ, খালেকুজ্জামান লিপন প্রমুখ।
নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, গ্যাসের অপ্রতুল সরবরাহ ও স্বল্প চাপ শিল্প খাতকে চরম সংকটে রেখেছে। ফলে শিল্প খাত জ্বালানী সংকট ও উৎপাদন ব্যয়বৃদ্ধির শিকার। এই অবস্থার প্রতিকার ছাড়াই শিল্পেও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির কথা বলা হচ্ছে। আর গ্যাসের দাম বাড়লে বিদ্যুৎ, সার এ দাম বাড়বে। যানবাহনে ভাড়া বাড়বে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, গ্যাস বিক্রির টাকার ৮১ শতাংশ সরকার পায়। গ্যাস খাতের উন্নয়ন হতে হবে জনস্বার্থে, রাজস্ব ও মুনাফার স্বার্থে হতে পারে না।