’গাড়ীওয়ালা’ যুক্তরাষ্ট্রের ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে পুরষ্কার জিতেছে

292

যুগবার্তা ডেস্কঃ ‘গাড়ীওয়ালা’ যুক্তরাষ্ট্রের হলিউড ও লাস ভেগাসে ১-৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত সিনেরকম ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল-এর প্রতিযোগিতা বিভাগে ৩টি পুরষ্কার অর্জন করেছে । ৭ দিনব্যাপি এই উৎসবে আশরাফ শিশির শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র পরিচালক বিভাগে পাটিনাম অ্যাওয়ার্ড, শিশুশিল্পী কাব্য ও মারুফ শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পী বিভাগে যথাক্রমে গোল্ড অ্যাওয়ার্ড ও এমারেল্ড অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন।
বাংলাদেশের চলচ্চিত্র হিসাবে হলিউডের কোনও উৎসবে এমন সম্মাননা প্রাপ্তির ঘটনা এই প্রথম। এ নিয়ে ‘গাড়িওয়ালা’র ঝুলিতে যোগ হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ইটালি, ভারত, স্পেন ও চিলি’র আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব থেকে মোট ১৪টি আন্তর্জাতিক পুরষ্কার। এখন পর্যন্ত পৃথিবীর সবচেয়ে বেশী দেশে সর্বাধিক আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রতিযোগিতা বিভাগে অংশ নেওয়া বাংলাদেশী চলচ্চিত্র হিসাবে জায়গা করে নিয়েছে ‘গাড়িওয়ালা’।
যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, সংযুক্ত আরব আমিরাত, গ্রিস, পর্তুগাল, রাশিয়া, কম্বোডিয়া, ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, ইটালি, চিলি, ভেনিজুয়েলা, কসোভা, রাশিয়া, কেনিয়া, মেক্সিকো মোট ৫ মহাদেশের ১৮টি দেশের ৫১টি শহরে ৫১টি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শনের যোগ্যতা অর্জন করে ছবিটি। সর্বশেষ পুরস্কার প্রাপ্তি প্রসঙ্গে পরিচালক আশরাফ শিশির বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এ অর্জন আমার একার নয়, সারা বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের। আমি চেয়েছি ছবিটি পৃথিবীর এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত শহরে-গ্রামে বাংলা ভাষার এই ছবিটি সবাই দেখুক।’
এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের সিনেরকম ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল থেকে তিনটি পুরস্কার জয় করে এইবার স্বদেশে ফিরছে ‘গাড়িওয়ালা’। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পরিচালক। জানালেন, এই ঈদেই ছবিটি দেশীয় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেওয়ার সকল এন্তেজাম চলছে এখন। যার ফলে বিভিন্ন আর্ন্তজাতিক উৎসবে প্রশংসিত এ ছবিটি এবার দেশের দর্শকরা দেখতে পারবে। তিনি আরও জানান, বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহের পাশাপাশি ঈদের পঞ্চমদিন সকাল সাড়ে দশটায় ছবিটির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হবে চ্যানেল আইতে।
‘গাড়িওয়ালা’ দুই ভাই এবং তাদের মায়ের গল্প। গ্রামের মাঠে-নদীতে ভেসে বেড়ানো দুই ভাই, জীবন সংগ্রামে বিপর্যস্ত তাদের মা, তাদের স্বপ্ন-স্বপ্নভঙ্গ আর জীবনের কষাঘাতে এক রাতে ছোট্ট এক শিশুর সামর্থ পুরুষ হয়ে ওঠার গল্প। তারা প্রচন্ড দারিদ্রের মধ্যেও কিভাবে গাড়িওয়ালা হয়ে উঠেছিল সেই গল্পগাঁথা।
ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত এ ছবিতে রোকেয়া প্রাচী ও রাইসুল ইসলাম আসাদের পাশাপাশি অভিনয় করেছে একঝাঁক শিশুশিল্পী। ছবিটির সংগীত পরিচালক সামিরা আব্বাসী ও রাফায়েত নেওয়াজ।