গাড়িতে ২৪ ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ

78

যুগবার্তা ডেস্কঃ গতকাল মঙ্গলবার রাত ১২ থেকে আজ বুধবার রাত ১২টা পর্যন্ত রাজধানীতে ফিলিং স্টেশনে গাড়িতে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য বিবিয়ানায় গ্যাস উৎপাদন বন্ধ থাকায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানির গণসংযোগ বিভাগের ব্যবস্থাপক মো. ওয়াহিদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মো. ওয়াহিদুজ্জামান জানান, বিবিয়ানায় উৎপাদন বন্ধ থাকায় তারা যেসব সিএনজি ফিলিং স্টেশনে (সারা দেশের মোট স্টেশনের ৬০ শতাংশ) গ্যাস সরবরাহ করে, সেগুলোতে গ্যাস দেওয়া বন্ধ থাকবে। বিষয়টি নিয়ে পেট্রোবাংলা থেকে গ্যাস সরবরাহকারী কম্পানিগুলোকে চিঠি পাঠানো হয়। তাতে সারা দেশের ফিলিং স্টেশনে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ রাখার কথা বলা হয়।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে গ্যাস সরবরাহ বন্ধের ঘোষণা আসার পর গ্যাসের জন্য সিএনজি ফিলিং স্টেশনগুলোতে ভিড় লেগে যায়। তবে রাত ১২টায় স্টেশনগুলো বন্ধ করে দেওয়ায় গ্যাস না পেয়েই অনেককে ফিরতে হয়।

রাজধানীর কয়েকটি সিএনজি কনভার্সন ও সার্ভিসিং সেন্টারে রাত ১২টায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়া হয়। সেখানকার কর্মীরা জানান, মালিকপক্ষের নির্দেশে তারা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করেছেন। বুধবার ১২টা পর্যন্ত তাদের পাম্প বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। এর আগে রাত ১১টার দিকে অনেক সিএনজি ফিলিং স্টেশনে গ্যাসের জন্য গাড়ির দীর্ঘ লাইন দেখা যায়। এ সময় আগে কিছু না জানিয়ে হুটহাট এভাবে গ্যাস বন্ধ করে দেওয়ার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেক গাড়িচালক।

তিতাস কর্মকর্তা ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, এই ২৪ ঘণ্টা বাসা-বাড়িতে সীমিত আকারে গ্যাস সরবরাহ করা হবে। ” ঈদের ছুটির সময় কল-কারখানায় গ্যাসের ব্যবহার কম থাকায় গ্যাসক্ষেত্রের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য এ সময়কে বেছে নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। তবে গতকাল মঙ্গলবার ছিল ঈদের ছুটির শেষ দিন। ফলে আজ বুধবার সারা দিন ফিলিং স্টেশনগুলোতে গ্যাস বন্ধ থাকলে ঈদ করে ঢাকায় ফেরা মানুষ সমস্যায় পড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।-কালেরকন্ঠ