গফরগাঁওয়ের ১১ জনের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন চূড়ান্ত

যুগবার্তা ডেস্ক:একাত্তরে সংঘঠিত মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার ১১ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করেছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা। তাদের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের সময় সংঘটিত গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানার নিগুয়ারী ইউনিয়নের সাধুয়া ও টাঙ্গাব ইউনিয়নের রৌহা গ্রামে মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটনের চারটি অভিযোগ আনা হয়েছে।

অভিযুক্ত আসামিদের মধ্যে পাঁচজন গ্রেফতার হয়ে কারাগারে রয়েছেন। তারা হলেন, মো. খলিলুর রহমান(৬২), মো. সামসুজ্জামান ওরফে আবুল কালাম, মো. রইছ উদ্দিন আজাদী, মো. আব্দুল মালেক আকন্দ ওরফে আবুল হোসেন ও মো. আব্দুল্লাহ। পলাতক আসামিদের নাম প্রকাশ করেনি তদন্ত সংস্থা।

সোমবার ধানমন্ডিতে তদন্ত সংস্থার কার্যালয়ে ৪৮তম তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার সময় এসব তথ্য তুলে ধরেন সংস্থার সমন্বয়ক আবদুল হান্নান খান। তিনি বলেন, ‘প্রায় তিন বছর তদন্ত করে আমরা ময়মনসিংহের ১১ আসামির বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করেছি। আজ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশনের কাছে প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়েছে।’

মামলাটি তদন্ত করেছেন সংস্থার তদন্ত কর্মকর্তা মনোয়ারা বেগম। এ মামলার তদন্ত শুরু হয়েছিল ২০১৪ সালের ১৬ অক্টোবর, যা শেষ হয়েছে চলতি মাসের ১৬ তারিখে। এ মামলার তদন্তকালে ৬০জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করা হলেও ২৯ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে। এছাড়া জব্দ তালিকার সাক্ষী রয়েছেন আরও ২ জন।

আসামিদের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের সময় চারজনকে হত্যা ও নয়জনকে আটক করে নির্যাতনের মোট চারটি অভিযোগ আনা হয়েছে।