গণতন্ত্রের নামে বেগম খালেদা জিয়ার প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ মদদ বন্ধ করতে হবে — বাদশা

118

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশে গুপ্ত হত্যা এবং জঙ্গিবাদী রাজনীতিকে পরিষ্কারভাবেই উস্কে দিচ্ছে বিএনপি-জামাতসহ তাদের আন্তর্জাতিক মিত্ররা। দেশী-বিদেশী এই ষড়যন্ত্রের মূল লক্ষ্যই হচ্ছে অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক রাজনীতিকে ধ্বংস করা এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে পরাজিত করা। এই মুহূর্তে বিশ্ব জঙ্গিবাদী সন্ত্রাসের সা¤্রাজ্যবাদী কৌশলের অংশ হিসেবে বাংলাদেশকে নরম ভূমি হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে। আজকে এই মুহূর্তের কর্তব্য হচ্ছে এই অপশক্তিকে রুখতে জনগণের জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলা। সরকারের আইন-শৃংখলা বাহিনীকে দুর্নীতিমুক্ত থেকে জনগণকে হয়রানীর বাইরে রেখে জঙ্গিবাদবিরোধী কর্মকা- পরিচালনা করতে হবে। পাশাপাশি স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলবাজদের আশ্রয়ে-প্রশ্রয়ে যুদ্ধাপরাধী মৌলবাদীদের কেউ কেউ জায়গা পাচ্ছে। তা বন্ধ করতে হবে। গণতন্ত্রের নামে বেগম খালেদা জিয়ার প্রত্যক্ষ-পরোক্ষ মদদ বন্ধ করতে হবে।সারাদেশে গুপ্ত হত্যার প্রতিবাদে আজ শুক্রবার মানব বন্ধন সমাবেশে ওয়ার্কার্স পার্টি সাধারন সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।
রাজধানী শাহবাগে সকাল ১১ টায় অনুষ্ঠিত কর্মসূচী জাতীয় কৃষক সমিতির সভাপতি কৃষকনেতা নুরুল হাসানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য নুর আহমদ বকুল, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও বুদ্ধিজীবী শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সুশান্ত দাস, এ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ এমপি, ইয়াসিন আলী এমপি, ওয়ার্কার্স পার্টি ঢাকা মহানগর সভাপতি আবুল হোসাইন, সংশ্লিষ্ট আয়োজক সংগঠন সমূহের প্রতিনিধিদের মধে বক্তব্য রাখেন জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল হক আমিন, জাতীয় কৃষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম গোলাপ, নারী মুক্তি সংসদের সভাপতি হাজেরা সুলতানা এমপি, বাংলাদেশ যুব মৈত্রীর সভাপতি মোস্তফা আলমগীর রতন, বাংলাদেশ খেতমজুর ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন রাজু, আইনজীবী সংগঠনের নেতা এ্যাড. ফিরোজ আলম, জাতীয় গার্হস্থ্য নারী শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মুর্শিদা আক্তার নাহার, বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।
এ কর্মসূচীর আয়োজন করেন জাতীয় কৃষক সমিতি, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন, বাংলাদেশ খেতমজুর ইউনিয়ন, বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদ, বাংলাদেশ যুব মৈত্রী, বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী, জাতীয় গার্হস্থ্য নারী শ্রমিক ইউনিয়ন, আইনজীবী-পেশাজীবী সংগঠনসমূহের যৌথ উদ্যোগে কিশোর রায় ও সাব্বাহ আলী খান কলিন্সের যৌথ সঞ্চালনায় মানববন্ধন কর্মসূচিতে শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল শাহবাগ থেকে টিএসসি মোড়ে এসে শেষ হয়।