খেলাপি ঋণ ১ লাখ ৭৭ হাজার ৫৮১ জন

57

বাংলাদেশের বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ঋণ খেলাপি ১ লাখ ৭৭ হাজার ৫৮১ জন। বৃহস্পতিবার সংসদে সরকারি দলের বেগম ওয়াসিকা আয়শা খানের এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রীর পক্ষে অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এ কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরো বা সিআইবি ডাটাবেজে রক্ষিত ২০১৫ সালের জুন মাস পর্যন্ত ৫০ হাজার টাকা ও তদূর্ধ্ব বকেয়া স্থিতিসম্পন্ন ঋণ হিসাব এবং ১০ হাজার টাকা ও তদূর্ধ্ব বকেয়া স্থিতিসম্পন্ন খেলাপি ক্রেডিট কার্ড হিসাবের ভিত্তিতে ঋণ খেলাপীর এই সংখ্যা নির্ধারণ করা হয়েছে। তিনি বলেন, ঋণ খেলাপি বিষয়ক মামলাগুলি দ্রুত নিষ্পত্তি করে ব্যাংক ঋণ দ্রুত আদায়ের লক্ষ্যে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এরমধ্যে খেলাপি ঋণ আদায়ের বিষয়টি রাষ্ট্রমালিকানাধীন বাণিজ্যিক ও বিশেষায়িত বিভিন্ন ব্যাংকের সাথে সম্পাদিত অ্যানুয়েল পারফমেন্স কন্ট্রাক্ট (এপিসি) তে উল্লে¬খ রয়েছে। প্রতিমাসে আদায়ের বিষয়টি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ ও তদারকি করা হচ্ছে। এম এ মান্নান বলেন, খেলাপি ঋণ আদায়ের লক্ষ্যে অর্থ ঋণ আদালতসহ অন্যান্য আদালতে বিচারাধীন মামলাগুলো তদারকির জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকে একটি পৃথক টাস্কফোর্স সেল আছে। উক্ত সেলের মাধ্যমে অর্থ ঋণ আদালতসহ অন্যান্য আদালতে দায়েরকৃত মামলাসমূহের সর্বশেষ অবস্থা পর্যবেক্ষণসহ আদালতের নির্দেশনাসমূহ যথাযথভাবে পরিপালনের জন্য সময়ে সময়ে বিভিন্ন নির্দেশনা প্রদান করা হচ্ছে। এর মাধ্যমে মামলাসমূহ দ্রুত নিষ্পত্তির লক্ষ্যে নিয়মিত তদারকি হচ্ছে। আদালতের বাইরে বিকল্প পদ্ধতিতে বিরোধ নিষ্পত্তির (এডিআর) মাধ্যমে খেলাপি ঋণের বিপরীতে আদায় ত্বরান্বিত করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।