কল্যাণপুরের জঙ্গি আস্তানাঃ নিহত হওয়ার আগের ছবি

যুগবার্তা ডেস্কঃ কল্যাণপুরের আস্তানায় পুলিশের অভিযানের আগে জঙ্গিরা কথিত আইএসের বেশে কালো পোশাক পরে ছবি তুলেছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা ওই আস্তানা থেকে উদ্ধারকৃত আলামতের মধ্যে কয়েকটি ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস থেকে এসব উদ্ধার করেছেন বলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা দাবি করেন। তারা জানান, জঙ্গিরা ওই আস্তানায় জড়ো হয়েছিল বড় ধরনের কোনও হামলার পরিকল্পনা নিয়ে। গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জিম্মি ঘটনার পর আইএসের আমাক এজেন্সি যে ছবি প্রকাশ করেছিল এসব ছবিও একই। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্র জানায়, জঙ্গিরা জেএমবির সদস্য হলেও তারা আইএসের আদর্শের অনুসারী। এ কারণে তারা আইএসের পতাকা পেছনে রেখে ছবিগুলো তুলেছিল। তারা নতুন কোনও বড় ধরনের নাশকতার আগে কোনও মাধ্যমে তা আইএসের কাছে পাঠাতো বলে ধারণা করা হচ্ছে।
অভিযানের আগে জঙ্গিরা তাদের কিছু ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস ভেঙে ফেলে। যেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এসব ডিভাইস থেকে কোনও গোপন তথ্য উদ্ধার করতে না পারে। তবে অভিযানের পর পুলিশ দুটি পেনড্রাইভ উদ্ধার করে। ওই পেনড্রাইভের ভেতরেই ছবিগুলো সংরক্ষিত ছিল। কাউন্টার টেররিজমের কর্মকর্তাদের ধারণা, ছবিগুলো কয়েক দিন আগে তারা তুলেছিল। সেগুলো পেনড্রাইভে সংরক্ষিত করে কোনও মাধ্যমে তা আইএসের আমাক ম্যাগাজিনের কোনও প্রতিনিধির কাছে পাঠানো হতো।
আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্র আরও জানায়, কল্যাণপুরের আস্তানা থেকে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট পাওয়া গেছে। যাচাই-বাছাই চলছে। এসব তথ্য বিশ্লেষণ করে জেএমবির এই ভগ্নাংশের বিস্তারিত নেটওয়ার্ক, মাস্টারমাইন্ড, অর্থদাতা, অস্ত্রের যোগানদাতাদের শনাক্তের প্রক্রিয়া ছলছে।
আইএসের পোশাক পরিহিত ছবির পাওয়া সম্পর্কে জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার ও কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, আমরা অনেক কিছুই পেয়েছি। এর মধ্যে ছবিও রয়েছে। এগুলো যাচাই-বাছাই চলছে। বাংলা ট্রিবিউন