এখন কি চিনি আমু !

ফজলুল বারী, সিডনীঃ বাংলাদেশের চিনিকলগুলোর সব ক’টি লোকসানী প্রতিষ্ঠান। মন্ত্রী-সচিব থেকে শুরু করে বড়-মাঝারি-ছোট নানান কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দূর্নীতির আখড়া এসব একেকটি চিনিকল। গোবিন্দগঞ্জের যে রংপুর চিনিকল নিয়ে সাঁওতাল নিগ্রহ থেকে এত ঘটনা, উৎস থেকে এটি কত হাজার কোটি টাকা লোকসান গুনেছে-দূর্নীতি লুটপাটের শিকার হয়েছে তা জনসমক্ষে প্রকাশ করা উচিত। এটি এ পর্যন্ত বন্ধ হয়েছে দু’বার। আরও দূর্নীতি-লুটপাটের আয়োজনের প্রক্রিয়া চলছে! স্বাধীনতার পর লবন কেলেংকারির জন্য লবন আমু নাম পাওয়া শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু
এখন চিনি আমু নামের জন্য এই লুটপাট নবায়নের নেতৃত্বে! গোবিন্দগঞ্জের রংপুর চিনিকল নামের লুটপাটের আখড়াটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিয়ে ধান চাষের জন্যেও যদি ভূমিপুত্র সাঁওতালদের হাতে তুলে দেয়া হয় তাহলেও দেশ অনেক লাভবান হবে।-লেখকঃ সাংবাদিক ও প্রবাসী