ইন্ডিয়ার কোচ থেকে ইস্তফা দিলেন অনিল কুম্বলে

56

যুগবার্তা ডেস্কঃ টিম ইন্ডিয়ার কোচের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন প্রাক্তন ভারতীয় স্পিনার অনিল কুম্বলে। কিছুদিন থেকে এমনই আলোচনা চলে আসছিলো। তার চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার ১০ দিন আগেই ইস্তাফা দিলেন।
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি শুরুর আগে থেকেই দেশটির অধিনায়ক বিরাট কোহলি এবং কুম্বলের মনোমালিন্যের কথা প্রকাশ্যে এসেছিল। যদিও কোচের সঙ্গে বিবাদের কথা অস্বীকার করেছিলেন কোহলি। জানিয়েছিলেন, তাঁদের মধ্যে সবই ঠিক আছে। তবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির প্র্যাকটিসের সময়ও কোচ-অধিনায়কের দূরত্ব ক্যামেরাবন্দি হয়েছিল। এমন পরিস্থিতিতে নয়া কোচের খোঁজ শুরু করে দিয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডও। নতুন কোচের আবেদনও জমা পড়তে শুরু করে দেয়। তারই মধ্যে শোনা গিয়েছিল, কুম্বলেও নাকি নতুন করে কোচ হওয়ার জন্য আবেদন জমা দিয়েছেন। ফলে আগামী দিনে ভারতীয় দলের দায়িত্ব কার কাঁধে উঠছে, তা নিয়ে চলছিল জোর জলঘোলা। অবশেষে বিসিসিআই-কে মঙ্গলবার কুম্বলে জানিয়ে দিলেন, কোচের পদে আর থাকতে চান না তিনি।
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি পর্যন্তই কোচ হিসেবে দলের সঙ্গে চুক্তি ছিল কুম্বলের। তবে আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর পর্যন্ত বিরাট কোহলিদের কোচ থাকছেন অনিল কুম্বলেই। গত সপ্তাহে এ কথাই নিশ্চিত করেছিলেন সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত প্রশাসনিক কমিটির (সিওএ) প্রধান বিনোদ রাই। তবে পুরোটাই নির্ভর করছিল কুম্বলের সম্মতির উপর। কিন্তু শেষমেশ তাঁর সম্মতি মিলল না। বছর খানেক দায়িত্বে থাকার পর পদত্যাগ করলেন তিনি। মঙ্গলবারই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে ক্যারিবিয়ান সফরে পাড়ি দেন বিরাট কোহলিরা। প্রথমে ঠিক ছিল, দলের সঙ্গেই বিমানে চড়বেন কুম্বলেও। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বিমানে ওঠেননি তিনি। যদিও না যাওয়ার কারণ হিসেবে আইসিসি-র এক অনুষ্ঠানে যাওয়ার কথা উল্লেখ করেছিলেন তিনি। আর তারপরই শোনা গেল তাঁর সিদ্ধান্তের কথা। কোহলি ও কুম্বলে দ্বন্দ্ব যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রকট হয়ে উঠেছিল, জাম্বোর সিদ্ধান্ত থেকেই তা স্পষ্ট। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের আগে কুম্বলের পদত্যাগে চাপে পড়ে গেল কোচহীন বিরাটবাহিনী।
চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি চলাকালীনই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের উপদেষ্টা কমিটির সদস্য শচীন তেণ্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং ভিভিএস লক্ষ্মণ কোচ বাছাইয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। তবে কিংবদন্তি বোলারকে কোচের পদ থেকে সরানোর কোনও কারণ খুঁজে পাননি তাঁরা। আর তাই নতুন কোচ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বোর্ডের থেকে আরও কিছুটা সময় চেয়ে নিয়েছিলেন শচীন-সৌরভরা। আর তাই ভারতীয় দলের ক্যারিবিয়ান সফর পর্যন্ত কুম্বলেকেই দায়িত্বে রাখার কথা জানিয়েছিলেন। কুম্বলের সড়ে যাওয়া নিয়ে ক্রিকেটমহলের ধারণা, ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হারের পর কোচ নিয়ে প্রশ্ন উঠে। তাই তিনি এমন সিদ্ধান্ত নেন।