ইডেন কলেজের অধ্যক্ষের অপসারণ দাবি

ডেস্ক রিপোর্ট: ইডেন কলেজে সিট বাণিজ্য, সন্ত্রাস ও শিক্ষার্থী নির্যাতনের সাথে যুক্ত ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও বিচার এবং সন্ত্রাসীদের মদদদাতা অধ্যক্ষকের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট। আজ ৩০ সেপ্টেম্বর বিকাল ৪ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ করেন সংগটএর নেতাকর্মীরা। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মুক্তা বাড়ৈ এবং সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক শোভন রহমান। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট ঢাকা নগর শাখার সভাপতি অনিক কুমার দাস, সহ-সভাপতি সুস্মিতা মরিয়ম ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক সুহাইল আহমেদ শুভ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ইডেন কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের দ্বন্দ্বে যে অপকর্মের কথা উঠে এসেছে, সারাদেশের গণতন্ত্রমনা উদ্বিগ্ন মানুষের হৃদয়ে নাড়া দিয়েছে। এটা ভয়ঙ্কর লজ্জার বিষয় যে স্বাধীনতার ৫১ বছর পরে এসেও দেশের অন্যতম প্রধান একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এরকম ঘটনা ঘটতে পারে। ইডেন কলেজের শিক্ষার্থী ছিলেন বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনে আত্মত্যাগকারী প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার। ইডেন কলেজের শিক্ষার্থীরাই ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রতিরোধের স্পর্ধায় নির্মাণ করেছিল শহীদ মিনার। ইডেন কলেজের সেই সংগ্রামী চেতনায় আজ কালি লেপনের মত জঘন্য অপরাধ করেছে ছাত্রলীগ। আর এতকিছু হবার পরও এই সন্ত্রাসীদের পক্ষ হয়ে সাফাই গাইছে ইডেন কলেজের অধ্যক্ষ। আমরা এই নতজানু দলদাস সন্ত্রাসীদের মদদদাতা অধ্যক্ষের অপসারণ দাবি করছি।

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, শুধু ইডেন কলেজেই নয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও তারা ঘোষণা দিয়ে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের উপর হামলে পড়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য জেনে শুনেও এই হামলা প্রতিরোধে কোন ব্যবস্থা নেননি। বরং একই সময়ে দুই বিরোধী সংগঠনকে একই সময়ে এপয়েন্টমেন্ট দিয়ে এই হামলাকে উস্কে দিয়েছেন। আমরা তারও নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।