আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষী দেয়ায় বৃদ্ধকে পিটিয়ে গুরুতর আহতঃ থানায় মামলা 

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর ডেমরায় পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় একজন বৃদ্ধকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। আহতের নাম আব্দুল লতিফ ভুইয়া(৭০)। সে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৬৬নং ওয়ার্ড এর ডগাইর পূর্বপাড়ার মৃত মনসুর আলীর ছেলে। ঘটনাটি ঘটে গত ২৪শে নভেম্বর বৃহস্প্রতিবার সন্ধ্যায় আক্তার বানু মসজিদরোডস্থ জাহানারা বেগমের  বাড়ির সামনে। 
এ ঘটনায় পরের দিন আহতের মেয়ে মাকসুদা আক্তার নিজে বাদি হয়ে কিশোর গ্যাং প্রধান মোঃ শাওন হোসেন (২৬) সহ অজ্ঞাত ২/৩ জনের নামে ডেমরা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরবর্তীতে আহতের মেয়ে বাদি হয়ে গত ২৬শে নভেম্বর ডগাইর বড়ভাংগার হামলাকারী মোঃ শাওন হোসেন ও তার সহযোগি অজ্ঞাত ২/৩ জনের নাম উল্লেখ করে ডেমরা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ডেমরা থানা মামলা নং ৪৭।
অভিযোগ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত শাওন স্থানীয় কিশোর গ্যাং প্রধান এবং তার বিরুদ্ধে ডেমরা থানায় ৭ এর অধিক মামলা রয়েছে। তার মধ্যে একটি হত্যা চেষ্টা মামলা রয়েছে। আর সেই মামলার সাক্ষী আব্দুল লতিফ ভুইয়া। শাওন ও তার পরিবারের লোকজন বিভিন্ন সময় আব্দুল লতিফ ভুইয়াকে সেই মামলার সাক্ষী দিতে বারণ করেন এবং হুমকি প্রদান করেন। কিন্তু লতিফ ভুইয়া তাদের হুমকিকে ভয় না করে কোর্টে সাক্ষী প্রদান করেন। তার পর থেকেই বিভিন্ন সময় লতিফ ভুইয়া উপর হামলা চালানোর চেষ্টা চালায় অভিযুক্ত শাওন ও তার পরিবারের লোকজন। গত ২৪শে নভেম্বর সন্ধ্যায় আক্তার বানু মসজিদ রোডে  আগে থেকেই ওত পেতে থাকে শাওন ও তার সহযোগীরা। লতিফ ভূঁইয়া ঘটনাস্থলে আসার সাথে সাথেই তার উপর দেশীয় অস্ত্রসহ অতর্কিত হামলা চালায় শাওন। 
বর্তমানে হামলাকরীদের ভয়ে লতিফ ভুইয়া ও তার পরিবারের লোকজন ভয়ে আতংঙ্কের মধ্যে রয়েছে। আবার যেকোন সময় সন্ত্রাসীদের হামলার শিকার হওয়ার কথা জানিয়েছেন লতিফ ভুইয়া ও তার পরিবার। 
এ ব্যাপারে হামলাকারী মোঃ শাওন হোসেনের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।
এ ব্যাপারে ডেমরা থানা অফিসার ইনচার্জ শফিকুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চত করে জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। খুব শীঘ্রই আসামি গ্রেফতার করতে পারব।