আমি এসেছি শীতল যুদ্ধের সময়কার বৈরিতার কবর রচনা করতেঃ কিউবায় ওবামা

81

যুগবার্তা ডেস্কঃ আমি এখানে এসেছি আমেরিকান দেশগুলোর মধ্যে শীতল যুদ্ধের সময়কালের বৈরিতার অবশেষটুকুরও কবর রচনা করতে। হাভানার গ্রেট থিয়েটারে বক্তৃতাকালে কিউবা সফররত মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ওই মন্তব্য করেন। তার বক্তব্য কিউবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়।
ওবামা কিউবান ভাষায় বলেন, ‘ক্রেও এন এল পুয়েব্লো কিউবানো।’ সঙ্গে সঙ্গে তিনি ইংরেজিতেও কথাটির পুনরাবৃত্তি করেন, ‘আমি কিউবার জনগণের ওপর বিশ্বাস রাখি।’
তিনি বলেন, আমি এসেছি কিউবার জনগণের প্রতি মিত্রতার হাত বাড়িয়ে দিতে। তার বক্তব্য উপস্থিত শ্রোতাদের মধ্যে আনন্দ ও উল্লাস দেখা দেয়। শ্রোতাদের মধ্যে কিউবার প্রেসিডেন্ট রাউল ক্যাস্ট্রোও ছিলেন।
কিউবা সফরের শেষ দিনে তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও কিউবার মধ্যে শান্তি ও মৈত্রীর নতুন দিক-নির্দেশনার আহবান জানান। সরাসরি সম্প্রচারিত ওই ভাষণে তিনি গত পাঁচ দশক ধরে কিউবার বিরুদ্ধে আরোপিত যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার জন্য মার্কিন কংগ্রেসের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, এই নিষেধাজ্ঞা কিউবার জনগণের ওপর একটি তামাদি হয়ে যাওয়া বোঝা। আর এটি সেইসব আমেরিকান নাগরিকদের ওপর একটি বোঝা যারা এখানে, কিউবায় কাজ করতে, ব্যবসা করতে বা বিনিয়োগ করতে চায়। ওই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার এখনই সময়।
উল্লেখ্য, আমেরিকা ১৯৬১ সালে কিউবার সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে এবং পরের বছর দেশটির বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। ১৯৫৯ সালে কিউবার বিপ্লবের সময় থেকেই দুই দেশ পরস্পরের আদর্শিক শত্রুতে পরিণত হয়।
কিউবায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট তার স্ত্রী মিশেল ওবামা, দুই মেয়ে, শ্বাশুড়ি, কয়েকজন মন্ত্রী, এমপি এবং বেশ কিছু ব্যবসায়ীকে সঙ্গে নিয়ে সফর করেন।