আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করে একটি

65

দুটি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল পুনর্গঠন করে একটি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বৃহস্পতিবার পুনর্গঠিত এ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের নাম প্রস্তাব করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক জানিয়েছেন, মামলার সংখ্যা কমে যাওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রস্তাবে রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষর শেষে আগামী সপ্তাহে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে ২০১০ সালের ২৫ শে মার্চ গঠন করা হয় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। মামলার সংখ্যা বৃদ্ধি পেলে দু’বছর পর ২০১২ সালের ২২শে মার্চ গঠন করা হয় আরেকটি ট্রাইব্যুনাল যা ট্রাইব্যুনাল-২ নামে পরিচিত।
ট্রাইব্যুনাল গঠনের পর থেকে দুটি ট্রাইব্যুনালে ২১টি মামলায় শীর্ষ মানবতাবিরোধীসহ ২৪ জনের বিচার শেষ হয়েছে। এর মধ্যে ট্রাইব্যুনাল-১ এ দশটি এবং ট্রাইব্যুনাল-২ এগারোটি মামলার রায় ঘোষণা করেছে। বর্তমানে দুটি ট্রাইব্যুনালে একটি মামলার আনুষ্ঠানিক বিচারকাজ চলছে।
এমন প্রেক্ষাপটে ট্রাইব্যুনালের সংখ্যা কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিল সরকার। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় টেলিফোনে আইনমন্ত্রী এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। একই সাথে পুনর্গঠিত ট্রাইব্যুনালের প্রধান এবং সদস্যদের নাম প্রস্তাব করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
দুটি ট্রাইব্যুনালের ৬ জন বিচারপতির মধ্যে তিনজন বিচারপতি দিয়ে নতুন এ ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হবে। বাকিরা হাইকোর্ট বিভাগে ফিরে যাবেন। প্রস্তাবিত বিচারপতিদের নামের সারসংক্ষেপে রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষর করলেই আগামী সপ্তাহে তা প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়।