অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ সুন্দরবনের ৫ জলদস্যুকে আটক করেছে র‌্যাব

56

মোংলা থেকে মোঃ নূর আলমঃ সুন্দরবনের জোংড়া খাল এলাকা থেকে বনদস্যু ‘বড় ভাই’ বাহিনী প্রধান মোশারফসহ ৫ জলদস্যুকে আটক করেছে র‌্যাব। জলদস্যুদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ৭টি দেশী-বিদেশী আগ্নেয়াস্ত্র ও ১শ ৯০ রাউন্ড গুলি।
র‌্যাব-০৮ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আদনান কবির জানান, পূর্ব সুন্দরবনের চাদপাই রেঞ্জ’র (মোংলা) পশুর নদীর জোংড়া খালে বনদস্যু বড় ভাই বাহিনী অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে ওই এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় বড় ভাই বাহিনী প্রধান মোশারফসহ ৫ জলদস্যুকে আটক করা হয়েছে। আটককৃত দস্যুদের কাছ থেকে ৩টি একনালা বন্দুক, ১টি দোনালা বন্দুক, ১টি পয়েন্ট টুটুবোর রাইফেল, ১টি ওয়ান শুটারগান ও ১শ ৯০ রাউন্ড বিভিন্ন ধরণের তাজা গুলি উদ্ধার করা হয়। আটক জলদস্যু ও উদ্ধার হওয়া গোলাবারুদ খুলনার দাকোপ থানায় হস্তান্তরের করা হয়েছে বলে জানায় র‌্যাব। আটক জলদস্যুরা হলো মোঃ মোশারফ গাজী(৩০)-পিতাঃ মোঃ এসকেন্দার গাজী, মোঃ সুমন হাওলাদার(২৫)-পিতাঃ মৃতঃ ইছহাক হাওলাদার, মোঃ এনামুল শেখ(২৮)-পিতাঃ মোঃ রফিক শেখ সর্ব সাং- জয়মনি, থানা- মোংলা, জেলাঃ বাগেরহাট, মোঃ ইয়াছিন মল্লিক(৩২), পিতাঃ মোঃ কুদ্দুস মল্লিক, সাং-হুগলাবুনিয়া, থান-মোংলা, জেলাঃ বাগেরহাট, মোঃ সামাদ মোল্লা (২৫)-পিতা- মৃতঃ আব্দুল গফুর মোল্লা, সাং-দেবিপুর, থানাঃ রামপাল, জেলাঃ বাগেরহাট।
র‌্যাব কর্মকর্তা আদনান কবির বলেন, বড় বড় দস্যু বাহিনীগুলো মোংলা, বরিশালসহ বিভিন্নস্থানে র‌্যাব-০৮ এর মাধ্যমে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের কাছে অস্ত্র-গোলাবারুদ জমা দিয়ে আত্মসমর্পন করায় সুন্দরবনে দস্যুতা এখন নেই বললেই চলে। দুই একটা যে ছোট বাহিনী রয়েছে তাদেরকেও আইনের আওতায় এনে সুন্দরবনকে দস্যুম্ক্তু করা হবে। সে লক্ষ্যে র‌্যাব-০৮ এর দস্যু দমনে বিশেষ অভিযান অব্যাহত রয়েছে।