অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগকারিদের জন্য বিশেষ সুযোগ

ডেস্ক রিপোর্ট: অর্থনৈতিক অঞ্চলে (ইজেড) অবস্থিত বিদেশী সংস্থা এবং যৌথ উদ্যোগকে (জেভি) স্থানীয় বাজারে তাদের অপারেশন ক্যাটারিংয়ের জন্য দেশীয় ব্যাংকিং সিস্টেম থেকে টাকায় কার্যকরী মূলধন ঋণ নেয়ার অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোর অভ্যন্তরীণ প্রক্রিয়াকরণ এলাকায় পরিচালিত শিল্প উদ্যোগগুলোর বিদেশী মুদ্রায় আয়ের উৎস নেই। ব্যবসার সুবিধার্থে, কেন্দ্রীয় ব্যাংক ২০২০ সালের অক্টোবরে একটি সার্কুলার জারি করে। যাতে তারা রপ্তানি বা আমদানি ছাড়াই টাকায় লেনদেন সম্পাদন করতে পারে। সোমবার জারি করা বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলারে তাদের টাকা অ্যাকাউন্ট থেকে যথাক্রমে রয়্যালটি, প্রযুক্তিগত জ্ঞান এবং প্রযুক্তিগত সহায়তা ফি হিসেবে প্রদান করতে বলা হয়েছে।

সার্কুলার আরো বলা হয়েছে, তাদের কার্যকরী মূলধনের আরো চাহিদা মেটাতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, টাইপ-এ এবং টাইপ-বি শিল্প উদ্যোগগুলো শুধুমাত্র দেশীয় বাজারে তাদের পণ্য বিপণনের জন্য এবং বিদেশী মুদ্রায় আয়ের কোনও উৎস ছাড়াই তাদের থেকে স্থানীয় ব্যাংকিং সিস্টেম অনুযায়ী টাকায় কার্যকরী মূলধন ঋণ বৃদ্ধি করার অনুমতি দেয়া হয়েছে।

১শ’ শতাংশ বিদেশী মালিকানাসহ সংস্থাগুলোকে ‘টাইপ-এ হিসেবে বিবেচনা করা হয় এবং বিদেশী ও বাংলাদেশী মালিকানাসহ যৌথ উদ্যোগ সংস্থাগুলোকে ‘টাইপ-বি’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়।
আমাদের সময়.কম