অধ্যাপক ডা. সাইদুর রহমান ছিলেন প্রগতি ও মানবতাবাদের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত-অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান

258

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশ আফ্রো-এশিয় গণসংহতি পরিষদের (আপসো) সাধারণ সম্পাদক, মুক্তিযুদ্ধের বীর সেনানী, বিশিষ্ট প্রগতিশীল ব্যাক্তিত্ব, সিপিবির প্রাক্তন নেতা, দেশের খ্যাতনামা চক্ষু চিকিৎসক, বারডেম হাসপাতালের চক্ষু বিভাগের সাবেক প্রধান চিকিৎসক ও দেশের চিকিৎসক সমাজের প্রবীণ নেতা, ডক্টরস্ ফর হেলথ্ এন্ড এনভায়রনমেন্ট এর অন্যতম উপদেষ্টা, অধ্যাপক ডা. এ এইচ. সাইদুর রহমানের মৃত্যুতে সংগঠনের উদ্যোগে আজ শনিবার সেগুন বাগিচাস্থ মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে বিকেলে এক শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করবেন সংগঠনের সভাপতি বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও প্রফেসর এমিরেটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। সভায় বক্তব্য রাখবেন, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের অন্যতম ট্রাস্টি ডা. সারোয়ার আলী, সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, অজয় রায়, অধ্যাপক ডা. শিশির মজুমদার, অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক এম এম আকাশ, সিপিডির নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক মুস্তাফিজুর রহমান, নারীনেত্রী ডা. ফওজিয়া মোসলেম এবং সংগঠনের কার্যকরী সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট হাসান তারিক চৌধুরী।

অনুষ্ঠানের শুরুতে শোক সঙ্গীত পরিবেশন করেন শিল্পী রতœা সরকার। সভায় প্রয়াতের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তারা বলেন, প্রয়াত ডা. সাইদুর রহমানের মৃত্যুতে জাতি এক অসামান্য প্রগতিশীল ব্যাক্তি ও মানবতাবাদী চিকিৎসককে হারালো। নেতৃবৃন্দ বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও এদেশের গণতান্ত্রিক প্রগতিশীল সংগ্রামে ডা. সাইদুর রহমানের অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। এদেশের শান্তি-মৈত্রী ও সংহতি আন্দোলনে তাঁর অবদান ছিল অসাধারণ। জঙ্গিবাদ-মৌলবাদের বিরুদ্ধে তিনি সর্বদাই তাঁর প্রতিবাদ অব্যাহত রেখেছেন। আন্তর্জাতিক প্রগতিশীল পরিম-লেও তিনি একজন সমাদৃত ব্যাক্তিত্ব ছিলেন। তিনি ছিলেন এদেশের চিকিৎসক সমাজের প্রিয় নেতা। সামরিক স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে গণতান্ত্রিক সংগ্রামে তিনি দেশের চিকিৎসক সমাজকে সংগঠিত করতে বিরাট অবদান রাখেন। এদেশের শান্তি, প্রগতি ও ন্যায়ের সংগ্রামে তাঁর অবদান দেশবাসী চিরকাল পরম শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ রাখবে।