অচল ঢাকা সচল করতে সাম্রাজ্যবাদ ও তার দালালদের উচ্ছেদে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের সমাবেশ

স্টাফ রিপোটার: আজ ১৩ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫ টায় অচল ঢাকা সচল করতে সাম্রাজ্যবাদ ও তার দালালদের উচ্ছেদে দূর্বার আন্দোল-সংগ্রাম গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট ঢাকা মহানগর কমিটির উদ্যোগে কেন্দ্রীয় কার্যালয় ৮ বি বি এভিনিউ (৩য় তলা), গুলিস্তান, ঢাকায় নেতা-কর্মীরা সমবেত হয়ে মিছিল সহকারে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গিয়ে সমাবেশ অনুষ্ঠিত করে। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মহানগর কমিটির সহ-সভাপতি রহমত আলী ও সঞ্চালনা করেন সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ দত্ত। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি শ্যামল কুমার ভৌমিক, খলিলুর রহমান, বাংলাদেশ কৃষক সংগ্রাম সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহজাহান কবির, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ ঢাকা মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট বেলায়েত হোসেন নয়ন, জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক আক্তারুজ্জামান খান, দপ্তর সম্পাদক আতিকুল ইসলাম, যাত্রাবাড়ী থানা কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ জহিরুল ইসলাম বাদল প্রমুখ। বক্তাগণ বলেন বর্তমান সরকার পূর্ববর্তি সরকারগুলোর ধারাবহিকতায় আইএমএফ’র শর্ত পূরণে জ¦ালানী তেল, ইউরিয়া সারের মূল্যবৃদ্ধিসহ পরিবহন ভাড়া, ঘরভাড়া, জীবন যাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি করছে। চাল, ডাল, তেল, লবন, পেঁয়াজ ও ওষুধসহ সকল নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের অব্যাহত দাম বৃদ্ধি, দফায় দফায় বিদ্যুৎ ও গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করছে। অপরিকল্পিত ও লুটপাটের স্বার্থে নগর উন্নয়নের নামে বারো মাস রাস্তা খোড়াখুড়ি ও জনদূর্ভোগ সৃষ্টি করছে। বাসযোগ্য রাজধানীর নামে বিদেশী বিনিয়োগের শর্ত পূরণ করতে কথায় কথায় হকার, বস্তি, রিক্সা, ইজিবাইক ব্যাটারি চালিত রিক্সা উচ্ছেদ করছে। পাড়া, মহল্লা, ওয়ার্ড ও ঢাকা মহানগরব্যাপী প্রশাসন ও সরকার দলীয় ছত্রছায়ায় মাদক ব্যবসায়ী ও মাস্তানের দৌরাত্ব বৃদ্ধি পাচ্ছে। নারী নির্যাতন, নারী ও শিশু ধর্ষণ, কাজের নামে বিদেশে পাচারসহ খুন-গুমের ঘটনা ঘটছে। উন্নয়নের অজুহাতে গাছ, প্রকৃতি-পরিবেশ, জীববৈচিত্র ধ্বংস করা হচ্ছে। সরকার দলীয় ছত্রছায়ায় দেশের মুৎসুদ্দি পুঁজিপতি ও প্রভাবশালীরা নদী, খাল, খেলারমাঠ, পার্ক, পুকুর দখল করছে। মোবাইল কোর্ট ও কাগজপত্র দেখার নামে গাড়ী থামিয়ে যাত্রী দূর্ভোগ, পার্কিং উচ্ছেদের নামে সিএনজি, বাইক অন্যান্য পরিবহনের পার্কিং মামলা দেওয়া হচ্ছে। মূল্যস্ফীতি ও মুদ্রাস্ফীতির কারণে শ্রমিকের প্রকৃত মজুরি কমে গেছে। ঢাকা মহানগরে ওয়াসা কর্তৃক বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ নিশ্চিত না করে দফায় দফায় পানির দাম বৃদ্ধি করছে। সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা ও ঔষধ সরবরাহ করা হচ্ছে না।
বক্তাগণ আরো বলেন পুরান ঢাকার মানুষের হাটাহাটি সহ শরীর চর্চার ক্ষুদ্র জায়গা বাহাদুর শাহ পার্ক দখল করে ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানকে ব্যবসা করা জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে যা অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। দেশটাকে দূর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছে। সর্বোপরি দেশের জনগণ দূর্বিষহ জীবন-যাপন করছে। সাম্রাজ্যবাদ ও তার দালালদের স্বৈরতান্ত্রিক শোষণ, নির্যাতন-নিপীড়নের কারণে ঢাকা মহানগর এখন সাধারণ মানুষের বসবাসের জন্য অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। অচল ঢাকা সচল করতে সাম্রাজ্যবাদ ও তার দালালদের উচ্ছেদে দূর্বার আন্দোল-সংগ্রাম গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে পরিশেষে বক্তাগণ অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা, বাক, ব্যক্তি ও মত প্রকাশের স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠার জন্য সাম্রাজ্যবাদ-সামন্তবাদ-আমলা মুৎসুদ্দি বিরোধী জাতীয় গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র, সরকার ও সংবিধান প্রতিষ্ঠায় লড়াই বেগবান করার আহ্বান জানান।