শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহার

34

যুগবার্তা ডেস্কঃ ’নো ভ্যাট অফ এডুকেশন’ এই স্লোগানে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের লাগাতার আন্দোলনে টিউশন ফি’র উপর আরোপিত ভ্যাট প্রত্যাহার করে নিয়েছে সরকার। সোমবার মন্ত্রীসভা বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
শিক্ষার্থীরা তিন দিনের ধর্মঘট পালনের সোমবার শেষ দিন। সকাল থেকেই ধর্মঘটের পক্ষে শিক্ষার্থীরা রাজধানীর ধানমন্ডি, মোহাম্মদপুরসহ বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যায়ের সামনে রাস্তা বন্ধ করে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে । অবস্থানের কারনে রাজধানীর প্রধান প্রধান সড়কগুলোতে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। দূভোগে পরে অফিসগামী সাধারন মানুষ। রাজধানীর বাহিরেও বিভিন্ন জেলায় এ ধর্মঘট পালনে শিক্ষার্থীরা রাজপথে আবস্থান নেয়।
বেতনের সঙ্গে সাড়ে ৭ শতাংশ ভ্যাট আরোপের সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ৯ সেপ্টেম্বও থেকে শিক্ষার্থীরা রাজপথে নামলে পুশিী হামলার স্বীকার হন। ঘটনার প্রতিবাদে ১০ সেপ্টম্বর একযোগে সকল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা রাজপথে নামলে রাজধানী অচল হয়ে পড়েছে। একই সাথে দেশের বিভিন্ন জেলাও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অবস্থার কর্মসূচী পালন করেছে।
আইনশৃংখলা বাহিনীকে হিমশিম খেতে হয়। প্রথম দিকে বল প্রয়োগ করলেও গত কয়েকদিন তারা শুধু পর্যবেক্ষন করেছে। শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত চালিয়ে যাওয়ার ঘোষনা দেয়। এবং শনিবার থেকে তিন দিনের ধর্মঘট আহবান করেন। সব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ধর্মঘট পালন করছেন।
ইতি মধ্যে এনবিআর, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ভ্যাট শিক্ষার্থীদের দিতে হবে না। ভ্যাট সরকারকে পরিশোধ করবেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তবে অর্থ মন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। তিনি ইঙ্গিত দিয়েছেন এবছর না হলেও আগামীতে শিক্ষার্থীদেরকেই ভ্যাট পূরন করতে হবে। এনিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে আন্দোলন তীব্র হলে সোমবার মন্ত্রীসভার বৈঠকে ভ্যাট প্রত্যাহারের ঘোষনা দেয়।
বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রীসহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন ও রাজনৈতিক দল শিক্ষার্থীদেও দাবি মেনে নেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান। এবং আন্দোলনে সমর্থন দেন।