মাগফিরাতের প্রথম জুমায় মুসল্লিদের ঢল

16

যুগবার্তা ডেস্কঃ পবিত্র মাহে রমজানের মাগফিরাতের আজ শুক্রবার প্রথম দিনে প্রথম জুমায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ সারা দেশের মসজিদেই নামাজ আদায় করতে মুসল্লিদের ঢল নেমেছে। রমজানের ১১তম দিনে দ্বিতীয় জুমায় বায়তুল মোকাররমে ৪৫ হাজার মুসল্লি একসঙ্গে জুমার নামাজ আদায় করেছেন।
মসজিদের মূল ভবনের নিচ তলা থেকে সাত তলা, দক্ষিণ-পূর্ব প্লাজা এবং উত্তর গেটে পল্টন সড়ক, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ভবনের সমানের সড়ক, দক্ষিণ গেটের সামনের রাস্তায় মুসল্লিরা জায়নামাজ, পলিথিন ও কাগজ বিছিয়ে নামাজ আদায় করেছেন। আর গ্রাউন্ড ফ্লোরে নারী মুসল্লিরা জুমার নামাজ আদায় করেন।
জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম ছাড়াও রাজধানীর মসজিদে মসজিদে মুসল্লিদের ঢল নেমেছিল। জুমার নামাজের আজান দেয়ার আগেই বিভিন্ন বয়সের রোজাদার ও মুসল্লিরা মসজিদের দিকে ছুটেন। নামাজ শুরুর আগেই প্রত্যেকটি মসজিদ কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়।
জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে কয়েক হাজার নারীসহ ৪৫ হাজারেরও বেশি মুসল্লি একসঙ্গে জুমার নামাজ আদায় করেন। নামাজ শেষে দেশের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনায় মোনাজাত করা হয়। গত জুমায় ৪০ হাজার মুসল্লি জুমার নামাজ আদায় করেন বলে জানিয়েছিলেন জাতীয় মসজিদ কর্তৃপক্ষ।
শুক্রবার দুপুর সোয়া ১২টায় আজানের আগেই জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে জুমার নামাজে শরিক হতে মুসল্লিরা আসতে শুরু করেন। দুপুর সাড়ে ১২টায় জাতীয় মসজিদ মূল ভবনের নিচ তলা থেকে সাত তলা কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। এরপর দক্ষিণ প্লাজা, পূর্ব প্লাজা এবং উত্তর গেটে পল্টনের রাস্তা, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ভবনের সামনের রাস্তা, দক্ষিণের গেটের সামনের রাস্তাতেও মুসল্লিদের ঢল নামে।
জুমার নামাজ শেষে মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে দেশ ও জাতির কল্যাণসহ বিশ্ব উম্মার শান্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাতে শরিক হন মুসল্লিরা। জুমার খুতবার পূর্বে রমজানের তাৎপর্য ও গুরুত্ব তুলে ধরে বয়ান করেন বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম মিযানুল ইসলাম।
বায়তুল মোকাররমের প্রশাসনের একাধিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আজ রমজানের দ্বিতীয় জুমায় আনুমানিক ৪৫ হাজার মুসল্লি অংশ নিয়েছেন। সামনে যতোদিন আসবে জুমায় মুসল্লির সংখ্যাও ততো বাড়বে।