টেন্ডার প্রক্রিয়ায় দীর্ঘসূত্রিতা পরিহার করতে হবে–নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

2

যুগবার্তা ডেস্কঃ প্রকল্প বাস্তবায়নে টেন্ডার প্রক্রিয়ায় দীর্ঘসূত্রিতা পরিহার করতে হবে। টেন্ডার প্রক্রিয়ায় কোন জটিলতা থাকবেনা। সকলে যাতে টেন্ডারে অংশ নিতে পারে সে ব্যবস্থা রাখবেন।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি আজ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) ও সংস্থার নিজস্ব প্রকল্পের অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় এসব নির্দেশনা দেন।

মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ আবদুস সামাদসহ মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ সংস্থাপ্রধানগণ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
সভায় জানানো হয়, ২০১৯-২০ অর্থবছরে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় ৪৯ টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এজন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ৪,৭১৩ কোটি ৩১ লাখ টাকা। প্রকল্পগুলোর মধ্যে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (এডিপি) অন্তর্ভূক্ত ৪০টি এবং সংস্থার নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়নাধিন ৯টি
সভায় আরো জানানো হয় যে, এডিপির ৪০টি প্রকল্পের মধ্যে বিআইডব্লিউটিএ’র ২০টি, বিআইডব্লিউটিসি’র দু’টি, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চারটি, বাংলাদেশ স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষের ছয়টি, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের একটি, পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের দু’টি, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের একটি, নৌপরিবহন অধিদপ্তরের দু’টি, ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউটের একটি ও জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের একটি এবং সংস্থার নিজস্ব অর্থায়নে নয়টি প্রকল্পের মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাতটি, বিআইডব্লিউটিসি’র একটি ও মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের একটি প্রকল্প।
অনুষ্ঠানে মন্ত্রণালয় ও সংস্থার ৪৭ জন প্রকল্প পরিচালকদের মধ্যে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের সফল দু’জন প্রকল্প পরিচালকের মাঝে প্রতিমন্ত্রী ক্রেস্ট প্রদান করেন। প্রকল্প বাস্তবায়নে সফল দু’জন হলেন: বাংলাদেশে চারটি মেরিন একাডেমী স্থাপন (পাবনা, বরিশাল, সিলেট ও রংপুর) প্রকল্পের রফিক আহম্মদ সিদ্দিক এবং বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের (বিএসসি) ছয়টি জাহাজ সংগ্রহ প্রকল্পের মোঃ ইউসুফ হোসেন।