প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজের মতবিনিময়

1

যুগবার্তা ডেস্কঃ আজ সকাল ১১টায় রাজধানীর পল্টনস্থ মুক্তি ভবনের প্রগতি মিলনায়তনে বাংলাদেশ প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমাজের উদ্যোগে “সহকারী শিক্ষকদের ‘১১তম গ্রেড বাস্তবায়নে করণীয়” শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি জনাব শাহিনুর আল-আমীন। সভায় বক্তারা বলেন, আমরা বাংলাদেশের প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকগণ বেতন ˆবষম্য দূরীকরণের জন্য দীর্ঘদিন ধরে ১১তম গ্রেডের জন্য আন্দোলন করে আসছি। আন্দোলনের ধারাবাহিকতায় গত ২৩ ডিসেম্বর শহীদ মিনারে সারাদেশের সহকারী শিক্ষকরা অনশন কর্মসূচি পালন করে। তৎকালীন মন্ত্রী মহোদয় (মাননীয় মন্ত্রী অ্যাড. মুস্তাফিজুর রহমান) শিক্ষকদের দাবি মেনে নিবেন বলে আশ্বস্ত করেছিলেন। পরবর্তীতে দাবিটি বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইস্তেহারেও সংযুক্ত করেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী শেখ হাসিনা ভয়েস কলের মাধ্যমে সকল শিক্ষককে আশ্বস্ত করেন। আমাদের দীর্ঘ আন্দোলনের পর মাননীয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও সচিব মহোদয় বেতন ˆবষম্য নিরসনের জন্য গ্রেড পরিবর্তনের প্রস্তবনা গত ২৯ জুলাই অর্থ মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করেন। আমাদের যৌক্তিক দাবি ১১তম স্কেলে বেতন নির্ধারণ। কিন্তু প্রস্তাব করা হয়েছিল ১২তম। যা বাংলাদেশের কোন সহকারী শিক্ষক মেনে নেয়নি। এতো কিছুর পরও গত ৮ সেপ্টেম্বর অর্থমন্ত্রণালয় একটি চিঠির মাধ্যমে জানান, “শিক্ষকদের বেতন গ্রেড যথাযথ ও সঠিক থাকায় গ্রেড উন্নিত করণের সুযোগ নেই।”
মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনেরর সভাপতি শাহিনুর আল-আমীন, আলোচনা করেন সাধারণ সম্পাদক হালিমুজ্জামান, সিনিয়র সহ-সভাপতি এ.কে.এম খসরুজ্জামান, মো. ইলিয়াছ হোসাইন, কবিরুজ্জামান, মো. মনসুর আলম টিপু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী সোলায়মান কবির, মো. মতিউর রহমান চন্তু। এছাড়াও আলোচনা করেন, মো. একলাচুর রহমান, মো. সেলিম হোসেন, মো, মমিনুল ইসলাম, মো. রেজাউল করিম রানা, হোসেন মো. সোহরাওয়ার্দী সরকার, শাহাদত আলামীন রাসেল, মো. নাসির, গোলাম মোস্তফা, মো. হামিদুল হক, মো. ইসমাইল হোসেন, মো. মিজানুর রহমান, রফিকুল ইসলাম শিশির, শিলা রানী সরকার ও নাজমুন্নাহার প্রমুখ।
সভাপতি শাহিনুর আল-আমীন তার বক্তব্যে বলেন, আমরা অর্থমন্ত্রণালয়ের এহেন দুঃসাহসিক জবাবকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি।