ডমিঙ্গোর পরিকল্পনায় সন্তুষ্ট বিসিবি

5

আগামী মাসে আফগানিস্তানের বিপক্ষে হোম সিরিজের আগেই বাংলাদেশ জাতীয় দলের হেড কোচ নিয়োগ দিতে চেষ্টা করছে বিসিবি। সম্প্রতি বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছিলেন, ১০ দিনের মধ্যেই টাইগারদের হেড কোচ নিয়োগ করা হবে। যার ধারাবাহিকতায় গতকাল ঢাকায় এসেছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক কোচ রাসেল ক্রেইগ ডমিঙ্গো। ৪৪ বছর বয়সী এই কোচের জন্ম দক্ষিণ আফ্রিকার পোর্ট এলিজাবেথে।

পেশাদার ক্রিকেটারের অভিজ্ঞতা না থাকলেও কোচিং জগতে বেশ সুনাম রয়েছে তার। গতকাল সকাল ১০টায় ঢাকায় আসেন তিনি। দুপুরের পরে ধানমন্ডির বেক্সিমকো কার্যালয়ে বিসিবি সভাপতি ও বিসিবি পরিচালকদের সামনে সাক্ষাত্কার দিয়েছেন রাসেল ডমিঙ্গো। টাইগারদের হেড কোচ পদের সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকায় তিনি ছাড়াও আরো দুজন আছেন।

নামগুলো প্রকাশ না করলেও গতকাল সাক্ষাত্কার পর্ব শেষে সন্ধ্যার আগে বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই প্রোটিয়া কোচের পরিকল্পনা, প্রেজেন্টেশন পছন্দ হয়েছে বিসিবি কর্তাদের। রাসেল ডমিঙ্গোর পরিকল্পনা সন্তোষজনক হলেও এখনই কোনো সিদ্ধান্ত নিচ্ছে না বিসিবি। কারণ সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা বাকি দুজনেরও সাক্ষাত্কার নিবে বিসিবি। এবং সেই পর্বও ঈদের আগে শেষ করতে চায় বিসিবি। সবার সাক্ষাত্কার শেষ হওয়ার পর এই তিন জন থেকে বাংলাদেশের পরবর্তী হেড কোচ চূড়ান্ত করা হবে। গতকাল এমনটাই বলেছেন বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস।

আজই ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে রাসেল ডমিঙ্গোর। ২০১৭ সালে জাতীয় দল থেকে বরখাস্ত হওয়ার পর দক্ষিণ আফ্রিকা ‘এ’ দলের কোচ হিসেবে কাজ করছেন তিনি। ২০০৪ সালে যুব বিশ্বকাপ, ২০১৪ টি-২০ বিশ্বকাপসহ কয়েকবারই প্রোটিয়াদের সঙ্গে বাংলাদেশ সফর করেছিলেন তিনি।

সাক্ষাত্কার পর্ব নিয়ে জালাল ইউনুস গতকাল সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আমাদের কাছে যেগুলো ছিল, ২-৩টা কোচ আমাদের হাতে আছে। প্রথমে রাসেল ডমিঙ্গো দক্ষিণ আফ্রিকার। উনি এসেছেন, উনি সাক্ষাত্কার দিয়ে গেছেন। এবং আমাদের হাতে আরো দু-একজন আছে। আমরাও তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছি। সম্ভবত তিন-চার দিনের মধ্যে ওরাও আসবে। এসে সাক্ষাত্কার দিবে।’

রাসেল ডমিঙ্গোর পরিকল্পনায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে বিসিবি। গতকাল জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘উনি একটা প্রেজেন্টেশন দিয়েছে, তার লক্ষ্য কি, বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে উনি কি চিন্তা করেন। কিভাবে উনি ডেলিভারি দিবেন আমাদের কাছে। উনার পারফরম্যান্স কিভাবে হবে এখানে। সবকিছু মিলে উনার সঙ্গে কথা হয়েছে। আমি বলবো, উনি বেশ সন্তোষজনক একটা প্রেজেন্টেশন দিয়েছেন।’

বিসিবির এই পরিচালক আরো বলেন, ‘উনি ভালোই দিয়েছেন, উনি পেশাদার কোচ। উনি প্রায় ৫ বছর দক্ষিণ আফ্রিকা দলের কোচ ছিলেন। বর্তমানে ‘এ’ দলে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার। সেক্ষেত্রে উনি সবদিক থেকে কোয়ালিফাই করেন। এখনই আমরা এটা নিশ্চিত করছি না। আমাদের হাতে যে আরও দুজন আছে, তাদেরকেও দেখবো, তারপর সিদ্ধান্ত নিব যে বাংলাদেশের জন্য কে হেড কোচ হবে।’-ইত্তেফাক