সুশাসন নিশ্চিত করা ছাড়া উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির সকল প্রচেষ্টাই বিফলে চলে যাবে–ইনু

56

প্রবীর আইচঃ জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি, তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে যে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির প্রচেষ্টা চলছে তা বিফলে চলে যাবে, যদি সুশাসন নিশ্চিত করা না যায়। তিনি বলেন, জঙ্গি দমনের মতই সুশাসনের প্রশ্নে সরকারকে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে। দল না দেখে মুখ না দেখে আইনের কঠোর প্রয়োগ সরকারকেই নিশ্চিত করতে হবে। সরকার-প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের আইনানুযায়ী নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন নিশ্চিত করতে হবে। জনাব ইনু বলেন, সুশাসনের জন্য সরকারসহ সকল গণতান্ত্রিক প্রগতিশীল অসাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক ও সামাজিক শক্তি-দল-মহল-ব্যক্তিকে নতুন রাজনৈতিক চুক্তিতে আসতে হবে। তিনি বলেন, সুশাসনের জন্য শুধুমাত্র সরকারের সদিচ্ছার জন্য অপেক্ষা না করে রাজনৈতিক-সামাজিক শক্তিকে এখনই সোচ্চার হতে হবে। কেবলমাত্র সুশাসনই পারে দলবাজী-গুন্ডামী-দুর্নীতি-লুটপাটের অভিশাপ থেকে দেশকে মুক্ত করতে। তিনি বলেন, ক্রবর্ধমান আর্থ-সামাজিক-রাজনৈতিক-লিঙ্গ বৈষম্য সামাজিক অশান্তি ডেকে আনছে। বৈষম্যের অবসানে সুশাসন ও সমাজতন্ত্রের বিকল্প নেই। তিনি জাসদের নেতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, জাসদ সুশাসন প্রতিষ্ঠাকে নতুন পর্বের রাজনীতির চ্যালেঞ্জ হিসাবে গ্রহণ করছে।

জনাব ইনু আজ সকাল ১০ টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জাসদ জাতীয় কমিটির সভায় স্বাগত ভাষণে এ বক্তব্য রাখেন।

এ সভায় অরো বক্তব্য রাখেন দলের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, কার্যকরী সভাপতি এড.রবিউল আলম, সহ-সভাপতি মীর হোসাইন আখতার, এড.শাহ জিকরুল আহমেদ, সাবেক সংসদ সদস্য রেজাউল করিম তানসেন, আব্দুল হাই তালুকদার, সবেদ আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরুল আখতার, নাদের চৌধুরী, আফজাল হোসেন খান জকি, যুক্তরাজ্য জাসদের সভাপতি এড. হারুন অর রশীদ, সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল মতিন মিয়া, এড. রফিকুল ইসলাম প্রমূখ।