গতিশীল জনপ্রতিনিধি থাকলে ভবিষ্যতেও মোংলাপোর্ট পৌরসভায় সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে

37

মোঃ নূর আলমঃ যদি গতিশীল নেতৃত্ব ও জনপ্রতিনিধি থাকে তাহলে ভবিষ্যতেও মোংলাপোর্ট পৌরসভায় বিশ্ব ব্যাংকের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। বর্তমানে মেয়রের কর্মকান্ডে আমি খুশী। বিশেষ করে পৌরসভার উন্নয়নমূলক কার্যক্রমে নারীদের সম্পৃক্ত করার জন্য। জুন ২০২০ সালের মধ্যে চলমান প্রকল্পের কাজ শেষ করতে না পারলে ফান্ড রিলিজ করা সম্ভব হবে না। তাই সকলকে আহবান জানাবো ঠিকাদারদের সহযোগিতা করার জন্য যাতে সময় মতো প্রকল্পের কাজ শেষ হয়। আজ মঙ্গলবার সকালে মোংলার দিগরাজ শিল্প এলাকায় পৌর মাল্টিপারপাস মার্কেটের উর্ধ্বমূখী সম্প্রসারণ এবং বাউন্ডারি নির্মান কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের টাস্ক টিম লিডার সিনিয়র নগর বিশেষজ্ঞ ক্ববেনা আমাংকা আইহে এ কথা বলেন।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় মার্কেট চত্বরে পৌরসভা আয়োজিত নির্মান কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব এবং স্বাগত বক্তৃতা করেন পৌর মেয়র মোঃ জুলফিকার আলী। বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন ওয়ার্ল্ড ব্যাংকের টেকনিক্যাল স্পেশালিস্ট মোঃ সিহাব উদ্দিন ও মিউনিসিপ্যাল গভর্নেন্স এন্ড সার্ভিসেস প্রজেক্ট’র ম্যানেজার এ কে এম কামরুজ্জামান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাংবাদিক মোঃ নূর আলম শেখ, প্যানেল মেয়র মোঃ আলাউদ্দিন, ম্ওালানা ˆতয়বুর রহমান, কাউন্সিলর আব্দুর রাজ্জাক, বাবুল চৌধুরী, খোরশেদ আলম, আয়েশা বেগম, জাহানারা পারভীন প্রমূখ।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় বিশ্ব ব্যাংকের টেকনিক্যাল বিশেষজ্ঞ মোঃ সিহাব উদ্দিন বলেন ৩১ মার্চ ২০২০ সালের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করতে হবে। সক্রিয় ভাবে ঠিকাদারদের কাজ করতে হবে। ১৫ দিন পর পর কাজ মনিটরিং করা হবে। কাজের অগ্রগতি সন্তোষজনক না হলে যতটুকু সম্ভব ততটুকু অর্থ ছাড় করা হবে। চলমান প্রকল্প মানসম্মত ভাবে সম্পন্ন হলে ভতিষ্যতে মোংলাপোর্ট পৌরসভা আরো প্রকল্প পেতে পারে।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় প্রজেক্ট ম্যানেজার এ কে এম কামরুজ্জামান বলেন মোংলাপোর্ট পৌরসভার উনśয়নমূলক কাজের অনেক অগ্রগতি হয়েছে। এটি একটি ট্যুরিস্ট স্পট হতে পারে। সময় মতো চলমান কাজ শেষ না হলে প্রজেক্ট ছোট হয়ে যেতে পারে। তাই প্রকল্প বাস্তবায়নে এখনই নেমে পড়তে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে পৌর মেয়র মোঃ জুলফিকার আলী উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এবং উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার এমপি সার্বক্ষণিক তদারকি এবং সহযোগিতা করায় তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফান্ড ( বিএমডিএফ ) এবং মিউনিসিপ্যাল গভর্নেন্স এন্ড সার্ভিসেস প্রজেক্ট’র ( এমজিএসপি ) আওতায় বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে ১০ কোটি ৮৮ লাখ টাকা ব্যয়ে মোংলার দিগরাজে পৌর মার্কেট উর্ধ্বমূখী সম্প্রসারণ হচ্ছে। এর আগে এই মার্কেটের একই প্রকল্পের মাধ্যমে ৫ কোটি ৬৭ লাখ টাকা ব্যয়ে দ্বিতল বিশিষ্ট ভবন নির্মান করা হয় যেটির এখন উর্ধ্বমূখী সম্প্রসারণ হচ্ছে। এছাড়া বিএমডিএফ এবং এমজিএসপি প্রজেক্ট’র মাধ্যমে ৫ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে মোংলা পোর্ট পৌরসভার আধুনি ভবন নির্মান কাজও ঘুরে দেখেন বিশ্ব ব্যাংকের টাস্ক টিম লিডার ক্ববেনা আমাংকা আইহে।