আমও গেলো, ছালাও গেলো…

4

প্রভাষ আমিন : রোববার সকাল থেকেই নিউজরুমে উত্তেজনা। রোববার ছিলো একাদশ জাতীয় সংসদের মনোননয়নপত্র যাচাই বাছাই। কিছুক্ষণ পরপরই খবর আসছিলো কোনো না কোনো হেভিওয়েট প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হয়ে গেছে। দুই মামলায় ১৭ বছরের দণ্ড নিয়ে কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া যে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন না, এটা আগেই ধারণা করা যাচ্ছিলো। তবুও বগুড়ার দুটি ও ফেনীর একটি আসনে তার পক্ষে মনোনয়নপত্র দাখিল করা হয়েছিলো। কিন্তু তিনটি মনোনয়নপত্রই বাতিল হয়ে গেছে।

এরপর একে একে আরো অনেক হেভিওয়েট প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলের খবর আসে, আর নিউজরুমে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। বিএনপি প্রার্থীদের মধ্যে চট্টগ্রামের মোরশেদ খান, মীর নাছির, গিয়াস কাদের চৌধুরী, আসলাম চৌধুরী, রাজশাহীর ব্যারিস্টার আমিনুল হক, নাদিম মোস্তফা, নাটোরের রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, খাগড়াছড়ির ওয়াদুদ ভূঁইয়া, ঢাকায় আমান উল্লাহ আমান, মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাস, নাসিরউদ্দিন পিন্টুর স্ত্রী নাসিমা আক্তার কল্পনার মনোনয়ন বাতিল হয়ে গেছে। এদের মধ্যে কারো মনোনয়ন বাতিল হয়েছে দণ্ড থাকায়, কারো ঋণখেলাপি, কারো মনোনয়নপত্রে ত্রুটি থাকায়।

আওয়ামী লীগের কোনো হেভিওয়েট নেতাই শেষ মুহূর্তে কাটা পড়েননি। তবে মহাজোটসঙ্গী জাতীয় পার্টির রুহুল আমিন হাওলাদার উৎড়াতে পারেননি। গণজাগরণমঞ্চের সাড়া জাগানো মুখপাত্র ডা. ইমরান এইচ সরকারও স্বতন্ত্র নির্বাচন করতে চেয়েও পারেননি। নেতিবাচক আলোচনায় শীর্ষে থাকা হিরো আলমের স্বপ্নপূরণ হয়নি। হিরো আলম এমপি হয়ে গেলে সংসদের মান কী হবে, তা নিয়ে যারা শংকিত ছিলেন, তারা নিশ্চয়ই এই খবরে স্বস্তি পাবেন।

তবে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে কাদের সিদ্দিকী, রেজা কিবরিয়া, গোলাম মাওলা রনির মনোনয়ন বাতিল হওয়ায়। কাদের সিদ্দিকী ঋণখেলাপি এটা আগে থেকেই জানা। কাদের সিদ্দিকী শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত সরকারি দলের সঙ্গে দর কষাকষি করে সুবিধা করতে না পেরে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে যোগ দিয়েছিলেন। গোলাম মাওলা রনি তো আগের দিন মনোনয়ন না পেয়ে পরদিন বিএনপির গুলশান অফিসে গিয়ে মনোনয়ন নিয়ে বেরিয়ে আসেন। কিন্তু মহাপ-িত রনি মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে ঠিকভাবে তা পূরণ না করায়। সাবেক অর্থমন্ত্রী এস এ এম এস কিবরিয়ার ছেলে রেজা কিবরিয়ার গণফোরামের যোগ দিয়ে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তার পা কেটেছে পচা শামুকে। ক্রেডিট কার্ডের মাত্র সাড়ে ৫ হাজার টাকার বিল পরিশোধ না করায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে গেছে। আহারে বেচারা কাদের সিদ্দিকী, রেজা কিবরিয়া আর গোলাম মাওলা রনির জন্য মায়াই লাগছে। তাদের আমও গেলো, ছালাও গেলো।

২. ক্রিকেটে টেস্ট খেলা হয় ৫ দিনে। কিন্তু বাংলাদেশের হাতে অতো সময় নেই। তারা টেস্ট খেলে আড়াই দিনে। অনেক আগে আড়াই দিনে হারতো বাংলাদেশ। এখন আড়াইদিনে জেতাটাই যেন অভ্যাস হয়ে গেছে। গত সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে গিয়ে গো হারা হেরেছিলো বাংলাদেশ। এবার ফিরতি সফরে ক্যারিবিয়দের হোয়াইটওয়াশ করে তার শোধ নিলো যেন। ১৩ উইকেট নিয়ে ঢাকা টেস্টের ম্যান অব দ্য ম্যাচ মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু এই টেস্ট আসলে টিমের সম্মিলিত চেষ্টার ফল। সাকিব আল হাসানের অলরাউন্ড পারফরম্যান্স তো ছিলোই, ছিলো মাহমুদউল্লাহর ক্যারিয়ার সেরা সেঞ্চুরিও। অভিষেকেই হাফ সেঞ্চুরি করে নজর কেড়েছেন সাদমানও। অভিনন্দন টিম বাংলাদেশ। লেখক : হেড অব নিউজ, এটিএননিউজ