পাকিস্তানকে হারিয়ে অনুর্ধ্ব ১৫ ফুটবলে শিরোপা জিতলো বাংলাদেশ

3

যুগবার্তা ডেস্কঃ সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল চ্যাম্বিপয়নশিপের ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে শিরোপা জিতলো বাংলাদেশ। শনিবার নেপালের এএনএফএ কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত ফাইনালের নির্ধারিত সময়ের খেলা ১-১ গোলে অমীমাংসিত ছিল। শেষমেশ টাইব্রেকারে ৩-২ গোলে জয় পায় বাংলাদেশ।

অনূর্ধ্ব-১৫ সালে বাংলাদেশের এটি দ্বিতীয় শিরোপা। এর আগে ২০১৫ সালে ঘরের মাঠে ভারতকে টাইব্রেকারে ৩-২ ব্যবধানে হারিয়ে প্রথম শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। সেবার অবশ্য সাফ অনূর্ধ্ব-১৬ নামে হয়েছিল এই টুর্নামেন্টটি। এরপর ২০১৭ সালে দ্বিতীয় আসরে নেপালের কাছে সেমিফাইনালে হেরে বিদায় নিয়েছিল। এক বছর পর আবারো শিরোপা ঘরে তুললো বাংলাদেশের কিশোররা।

সেমিফাইনালের মতো ফাইনালেও আজ বাংলাদেশ দলের হিরো হয়েছেন গোলরক্ষক মেহেদী হাসান। আজও তিনি দারুণ দক্ষতায় তিন-তিনটি শট ফিরিয়ে দিয়েছেন। ম্যাচের নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার আগেই মূল গোলরক্ষক মিতুলকে উঠিয়ে মেহেদীকে মাঠে নামান কোচ।

শনিবার নেপালের এএনএফএ কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত ফাইনালে বাংলাদেশ ম্যাচের ২৫ মিনিটে এগিয়ে যায়। কিন্তু ৫৪ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ম্যাচে সমতা ফেরায় পাকিস্তান। সেই সমতা নিয়েই শেষ হয় নির্ধারিত সময়ের খেলা। এরপর ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে।

শনিবার নেপালের এএনএফএ কমপ্লেক্সে বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম শট নেন রাজন হাওলাদার। কিন্তু তার নেওয়া শট উপর দিয়ে উড়ে যায়। এরপর পাকিস্তানের জুনায়েদ আহমেদ শাহ’র নেওয়া শট ফিরিয়ে দেন বাংলাদেশের গোলরক্ষক মেহেদী হাসান।

এরপর বাংলাদেশের ১১ নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় গোল করে এগিয়ে নেন (১-০)। পাকিস্তানের আদনান জাস্টিনের নেওয়া শট ডানদিকে ঝাপিয়ে পড়ে রুখে দিয়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে রাখেন গোলরক্ষক মেহেদী। বাংলাদেশের ৬ নম্বর জার্সিধারী খেলোয়াড় এসে গোল করে ব্যবধান করেন (২-০)।

পাকিস্তানের হয়ে তৃতীয় শটটি নিতে আসেন মহিবউল্লাহ। তিনি গোল করলে ব্যবধান হয় ২-১। অবশ্য মেহেদী ডানদিকে ঝাপিয়ে পড়েও রুখতে পারেননি। বাংলাদেশের পক্ষে চতুর্থ শট নিতে আসেন রুস্তম ইসলাম দুখুমিয়া। তিনি শট নেওয়ার সময় পাকিস্তানের গোলরক্ষক বামদিকে ঝাপিয়ে পড়ে। সেটা দেখে আলতো করে ডানদিক দিয়ে বল জালে পাঠান (৩-১)।

পাকিস্তানের চতুর্থ শট থেকে গোল করেন ওয়াসিফ। তাতে ব্যবধান হয় ৩-২।বাংলাদেশের পঞ্চম শটটি রবিউল আলম। কিন্তু তিনি সরাসরি গোলরক্ষের দিকে মারলে সেটা ধরে ফেলেন পাকিস্তানের গোলরক্ষক। এরপর পাকিস্তানের মোদাসসের নজরের নেওয়া পঞ্চম শটটি ঠেকিয়ে দিয়ে বাংলাদেশের শিরোপা জয় নিশ্চিত করেন গোলরক্ষক মেহেদী হাসান।

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি ফেয়ার প্লে অ্যাওয়ার্ডও পেয়েছে বাংলাদেশ। সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার পেয়েছেন বাংলাদেশের নিহাত জামান উচ্ছ্বাস। মালদ্বীপের বিপক্ষের ম্যাচে একাই ৪ গোল করেছিলেন উচ্ছ্বাস।

সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের এবারের আসরে গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ মালদ্বীপকে হারিয়েছিল ৯-০ ব্যবধানে। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিক নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনালে উঠেছিল। সেমিফাইনালে শক্তিশালী ভারতকে টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছায় লাল-সবুজের জার্সিধারীরা। আর ফাইনালে আজ শনিবার পাকিস্তানকে টাইব্রেকারে ৩-২ ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা নিয়েই দেশে ফিরছে কিশোরদের দল।