বাচ্চারা, উই প্রাউড অফ ইউ!

24

মোরশেফা মিলিঃ বাচ্চারা তোমাদের জন্য খুব গর্ব হচ্ছে! কি বলবো, কি বলতে হবে ভাষা খুঁজে পাচ্ছি না।

লালমাটিয়া থেকে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাচ্ছি উবার করে। পথে বাচ্চারা দুই জায়গায় গাড়ি থামালো। তাদের ব্যবহার আর ভাষা দেখে আমি চমৎকৃত । কোথায় শিখলি বাপ তোরা এসব!

ড্রাইভারও দেখলাম খুব সম্মানের সাথে ওদের সাথে কথা বলছে। জিজ্ঞেস করলাম, এই যে বাচ্চারা লাইসেন্স দেখতে চাচ্ছে তার কেমন লাগছে? তার কথায় আরো চমৎকৃত হলাম। খুব আপ্লুত হয়ে বললো ‘খারাপ লাগবে কেনো আপা, খুব ভালো লাগছে। ঠিক কাজইতো করছে ওরা।’

তার পরের কথাতে বুঝলাম এই সম্মান বাচ্চারা তাদের কাজের মাধ্যমে আদায় করে নিয়েছে। ড্রাইভার সাহেব আরো বললেন আজ সকালে তার এক নারী যাত্রী তার ভালোলাগা থেকে বাচ্চাদের নাস্তা পানি খাবার জন্য ২ হাজার টাকা নিয়ে খুব সাধাসাধি করেছে। কিন্তু বাচ্চারা কিছুতেই সেই টাকা নিতে রাজী হয়নি। বলেছে, ‘এটা নিলে মনে হবে আমরা চাঁদাবাজি করছি, আপনি আমাদের ক্ষমা করুন’।

পুলিশ ভাইদের বলছি দেখুন কিভাবে সম্মান আদায় করে নিতে হয় বাচ্চাদের কাছে শিখুন, ভবিষ্যতে কাজে দিবে।

বাচ্চারা, উই প্রাউড অফ ইউ! এভাবেই অন্যায়ের প্রতিবাদ করিস, দেশকে ভালোবাসিস!-লেখক: একজন সমাজ কর্মী।