হজ্জ পালনের স্বপ্ন পূরণ হবে না ১৩ হাজার বাংলাদেশির

3

যুগবার্তা ডেস্কঃ গত বছরের মতো চলতি বছরেও রিপ্লেসমেন্ট এর সংখ্যা না বাড়ালে হজ্জ পালনের স্বপ্ন পূরণ হবে না ১৩ হাজার বাংলাদেশির।

রোববার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে আবেদনকৃত হজ্জযাত্রীদের কোটা পুরণ না হওয়ার এ আশংকার কথা জানান বাংলাদেশ হজ্জযাত্রী ও হাজী কল্যাণ পরিষদ।

বিবৃতিতে জানানো হয়, গত বৎসর ১৫ শতাংশ রিপ্লেসমেন্ট ছিল, এবার এ সংখ্যা ২০ শতাংশ করা উচিত। আর সেটি করা না হলে চলতি বছরেও হজ্জ গমন অনিশ্চিত হওয়ার আশংকা রয়েছে কমপক্ষে ১৩ হাজার বাংলাদেশির।

এ প্রসঙ্গে আলাপকালে বাংলাদেশ হজ্জযাত্রী ও হাজী কল্যাণ পরিষদের সভাপতি ড. আব্দুল্লাহ আল-নাসের বলেন, আমাদের এ আশংকার কারণ হলো গত বৎসর বিমান ভাড়া ছিল ১ লক্ষ ২৪ হাজার টাকা, এবার বিমান ভাড়া ১ লক্ষ ৩৮ হাজার টাকা। মোয়াল্লেমের অতিরিক্ত সার্ভিস চার্জ গত বৎসর ছিল ৭২০ সৌদি রিয়্যাল এবং ১১ শত থেকে ১৫ শত সৌদি রিয়্যাল। মক্কা ও মদিনা শরীফে বাড়ি ভাড়া অত্যাধিক হারে বেড়েছে। তাই রিপ্লেসমেন্টকৃত হাজীদের বিমান ভাড়া ব্যাংকেও জমা রাখা আছে।

ইতোমধ্যে এজেন্সিগুলো মক্কা ও মদিনা শরীফে তাদের মাধ্যমে যেসব হাজী সৌদি যেতে চায় তাদের জন্য হোটেল ভাড়া করেছে, মোয়াল্লেম এর অতিরিক্ত সার্ভিস চার্জ দিয়েছে, মোয়াল্লেম ফি জমা দিয়েছে। যদি রিপ্লেসমেন্ট গত বৎসরের চেয়ে কম দেয়া হয় তাহলে হজ্জ এজেন্টগুলোর লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষতি হবে।

জানা গেছে, এবার ১৩ হাজার হজ্জযাত্রীর কোটা পূরণ না হলে আগামী বছর সমসংখ্যক কোটা সৌদি সরকার বাংলাদেশকে নাও দিতে পারে। নেতৃবৃন্দ বলেছেন, রিপ্লেসমেন্ট এর সংখ্যা বাড়ালে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের কোন ক্ষতি হবে না। বরঞ্চ রিপ্লেসমেন্ট দিয়ে পুরো কোটা পুরণ হলে সরকারের ভাবমূর্তি আরও বাড়বে।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্জ আব্দুল বাতেন জানান, গত বৎসর ১৫ শতাংশ হওয়ায় ১ লক্ষ ২২ হাজার হজ্জযাত্রীর মধ্যে ১৮ হাজার তিনশত হজ্জযাত্রী পবিত্র হজ্জ পালন করতে পেরেছিলেন। এবার ৪ শতাংশ হওয়ায় ১ লক্ষ ২২ হাজার হজ্জযাত্রীর মধ্যে ৪ হাজার ৮ শত ৮০ জন হজ্জযাত্রী হজ্জ পালন করতে পারবেন। বাকী প্রায় ১৩ হাজার হজ্জযাত্রীর কোটা পুরণ হবে না এবং এ সংখ্যক হজ্জযাত্রী হজ্জ করতে পারবেন না। বাংলাদেশ থেকে ২০ শতাংশ রিপ্লেসমেন্ট এর সংখ্যা না বাড়ালে প্রায় ১৩ হাজার হজ্জযাত্রীর কোটা পূরণ না হওয়ার আশংকা রয়েছে।

এ বিষয়ে নীতিনির্ধারকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ চলতি বছর হজ্জের সকল দিক বিবেচনা করে ধর্মমন্ত্রী ও সচিবের প্রতি ২০ শতাংশ রিপ্লেসমেন্ট অনুমোদনের জন্য জোর আহবান জানিয়েছেন ।