আজ ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির ৩৬তম শুভ জন্মদিন: বদান্যতার হাত প্রসারিত হোক

111
সুব্রত মণ্ডল:

সুমনা গ্রুপের চেয়ারম্যান, ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় শিল্প ও বাণিজ্য  উপকমিটির সদস্য ও সাবেক সহ সম্পাদক শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সমাজ কল্যাণ সম্পাদক বিশিষ্টি শিল্পপতি, দানবীর সমাজ সেবক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির আজ শুভ জন্মদিন।ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির শুভ জন্মদিনে তার শুভাকাঙ্ক্ষীরা শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি শুভাকাঙ্ক্ষীদের ভালবাসায় সিক্ত হচ্ছেন। শুভ জন্মদিনের একদিন আগ থেকেই তার শুভাকাঙ্ক্ষীরা বিভিন্ন মাধ্যম যেমন ফেসবুক টুইটার ও তার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে জন্মদিনে শুভেচ্ছার বার্তা প্রেরণ করে চলেছেন।

প্রধানমন্ত্রী পদকপ্রাপ্ত শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এই সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির শুভাকাঙ্ক্ষীরা শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি তাঁর বদান্যতার হাত আরো প্রসারিত হবার প্রার্থণা করেছেন।এই শুভক্ষণে আসুন আজ এই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের আধুনিক সমাজ সেবকের সংক্ষিপ্ত জীবনী নেওয়া যাক।

শিক্ষাজীবন:

১৯৮২ সালের ১লা জুলাই পুরান ঢাকার টিপু সুলতান রোডের বাড়িতে তার জন্ম। তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালি জেলার চাটখিল উপজেলার গোমাতলী গ্রামে। ২০০৮ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে তিনি ডা. ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস ডিগ্রী অর্জন করার পর সুমনা গ্রুপের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন।

সুমনা গ্রুপের চেয়ারম্যান ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির পদক প্রাপ্তি: বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভানেত্রী ও  প্রধানমন্ত্রী মাদার অব হিউম্যানেটি, বঙ্গতনয়া, দেশরত্ম বিদ্যানন্দিনী শেখ হাসিনার হাত থেকে ২০১৬ সালের ১৮ অক্টোবর শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ’ এর সেরা সংগঠক হিসেবে পদক গ্রহণ করেন। এছাড়া বিভিন্ন সাংস্কৃতিক, সামাজিক ও মানবাধিকার কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পদক পেয়ে আসছেন। যেমন: ‌‌‘মাহাত্মা গান্ধী পিস অ্যাওয়ার্ড-২০১৬’, ‘মানবাধিকার শান্তি সম্মাননা পদক ২০১৬’, ‘অতীশ দিপঙ্কর পদক-২০১৬’ প্রভূতি।

সংক্ষেপে ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির মানবিক কর্মকাণ্ডের চিত্র:

বেসরকারি স্বাস্থ্য খাতের সফল উদ্যোক্তা ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি শহরে চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি ব্যবসায় সামাজিক দায় নিয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন গ্রামীন প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবন যাত্রার মানোন্নয়নের লক্ষে। ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা বিশিষ্ট সফল সমাজ সেবক ডা. সিরাজুল ইসলাম ২০১৫ সালের ১৩ সেপ্টেম্বরে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত হওয়ার পর ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি সুমনা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।সেই সাথে ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন। ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি তার প্রয়াত পিতা ডা. সিরাজুল ইসলামের ন্যায় কর্ম জীবনের শুরু থেকে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডের নিজেকে নিয়োজিত করেন। পিতার কাছে দিক্ষা নিয়ে মহকালের মহায়নায়ক, সোনার বাংলার স্বপ্নদ্রষ্টা, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ছাত্র জীবন থেকেই আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। তিনি ‘শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ’ এর কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী কমিটির সমাজ কল্যাণ সম্পাদক হিসেবে সংগঠনটির দায়িত্ব পালন করেছেন। নিষ্ঠার সাথে সাংগঠনিক দায়িত্ব পালন করায় ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভানেত্রী ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মাদার অব হিউম্যানেটি, বঙ্গতনয়া, দেশরত্ম বিদ্যানন্দিনী শেখ হাসিনার হাত থেকে ২০১৬ সালের ১৮ অক্টোবরে ‘শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদ’ এর সেরা সংগঠক হিসেবে পদক গ্রহণ করেন।

তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় শিল্প ও বাণিজ্য  উপকমিটি সদস্যের দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সহসম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি বিভিন্ন সমাজ সেবামুলক কর্মকাণ্ড যেমন মসজিদ, মাদ্রাসা, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ও বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সাথে নৈতিক ও আর্থিক সহযোগীতামূলক কর্মকাণ্ডের নিজেকে সম্পৃক্ত করেছেন।

ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প স্থাপন:

ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির সরাসরি তত্ত্বাবধানে হাসপাতালটি শুরু থেকেই বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন দিবস যেমন জাতীয় শিশু দিবস ও জাতির পিতার  শুভ জন্মদিন,  আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, স্বাধীনতা দিবস, বিজয় দিবস উপলক্ষে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প স্থাপন করা হয়ে থাকে। যেখানে হাসপাতালটির বর্হিবিভাগ থেকে অস্বচ্ছল রোগীদের মাঝে বিশেষজ্ঞ সেবা দেওয়া হয়ে থাকে।

নোয়াখালিতে ডা. সুলতান মাহমুদ ফ্রি ডক্টরস চেম্বার প্রতিষ্ঠা: নোয়াখালী জেলার চাটখিল উপজেলার বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজসেবক ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি তাঁর পৈত্রিক নিবাস চাটখিল উপজেলার গোমাতলী গ্রামের ডা.  সুলতান মাহমুদ ভবনে ফ্রি ডক্টরস চেম্বারের কার্যক্রম শীঘ্রই উদ্বোধন করতে যাচ্ছেন।

অসহায় অস্বচ্ছল রোগীদের বিনামূল্যে সেবা প্রদান: বিভিন্ন সময় পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত অসহায় অস্বচ্ছল রোগীদের দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে নিয়ে এসেছে চিকিৎসা সেবা ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল লিমিটেডে দিয়ে আসছে। তার উদহারণ নিন্ম রুপ।

মানসিক রোগী রিমা আক্তারের চিকিৎসার দায়িত্ব গ্রহণ: ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির নির্দেশে নোয়াখালি জেলার চাটখিল উপজেলার গোমাতলী গ্রামের লাতুর বাড়ির  অসহায়  মানসিক ভারসাম্যহীন রিমা আক্তার চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়ে সুস্থ করে তুলা। রিমা আক্তারকে ২০১৮ সালের ৯ জানুয়ারিতে রিমা আক্তারকে  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রায় একমাস চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন রিমা আক্তার।

বিরল রোগ ওয়াইলাল্ড সিন্ড্রোম রোগী আব্বাস শেখের চিকিৎসার দায়িত্বগ্রহণ: ২০১৮ সালের ১৯ ও ২০ ফেব্রুয়ারি বিরল রোগে আক্রান্ত মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার আব্বাস শেখকে নিয়ে বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমের প্রকাশিত সংবাদ ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল লিমিটেডের চিফ ইক্সিকিউটিভ অফিসার (সিইও) অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. এমএ আজিজের নজরে আসে। তিনি প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. রুবাইয়াত ইসলামকে অবহিত করেন।   প্রতিষ্ঠানটির সিইও ব্যবস্থাপনা পরিচালক(এমডি) ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির নির্দেশে আব্বাসকে ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটালের পক্ষ থেকে চিকিৎসার দায়িত্ব ভার নেন।২১ শে ফেব্রুয়ারি থেকে আব্বাস শেখ ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজে এন্ড হসপিটালের সার্জারী বিভাগের প্রধান মেজর জেনারেল (অব:) অধ্যাপক ডা. এমএ বাকীর অধীনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গত ১৮ মার্চ প্রতিষ্ঠানটির মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. সাবরীনা ইয়াসমীন,  প্যাথলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. এসএম খোদেজা নাহার বেগম ও ডার্মাটোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. তৌহিদা নূরের টিম আব্বাস শেখ বিরল রোগ ‘ওয়াইল্ড সিন্ড্রোম’ সনাক্ত করতে সমর্থ হন। বিরল ‘ওয়াইল্ড সিন্ড্রোম’ রোগে  আক্রান্ত মাদারীপুরের কিশোর আব্বাস শেখের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়ে তার রোগ নির্ণয়ের পর সিঙ্গাপুর জেনারেল হসপিটালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। ওয়াইল্ড সিন্ড্রোমে আক্রান্ত  আব্বাস শেখ পৃথিবীতে তৃতীয় রোগী।

বিনামূল্যে মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা সেবা প্রদান: ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির নির্দেশে হাসপাতালটি সব সময় রাষ্ট্রের সূর্য সন্তান অস্বচ্ছল খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধাদের বিভিন্ন সময়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করে আসছে।  শরীরে বার্ধক্য জনিত রোগে আক্রান্ত ২৭ মার্চ , ২০১৮ ইং টাঙ্গাইলের বীর প্রতীক হামিদুল হককে (৭৪) অসুস্থ অবস্থায় তুলে এনে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটালের আইসিইউতে চিকিৎসাধানী ৫ এপ্রিল ভোরে বীর প্রতীক হামিদুল হক পরলোক গমন করেন।

এদিকে একই বছর ২৮ মার্চ  বীর মুক্তিযোদ্ধা প্লাটুন কমান্ডার জয়নুল হক চৌধুরী (৬৫) আশঙ্কাজনক অবস্থায় ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজে আইউসিইউতে ভর্তি হন। চিকিৎসকদের সমস্ত ব্যর্থ করে এই বীর সন্তান ৪ এপ্রিল ভোরে মৃত্যু বরণ করেন। প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নুল হক চৌধুরীর জন্য হাসপাতালের সেবা চার্জ হিসেবে ২ লক্ষ ২৬ হাজার ৫ শ ২১ টাকা হয়। প্রয়াত সূর্য সন্তান জয়নুল হক চৌধুরীর পরিবারের আর্থিক দুরবাস্থার কথা জানার সঙ্গে সঙ্গে ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি তা মওকুফ করে দেন। পরে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নুল হক  চৌধুরীর পরিবার খুশি হয়ে মাত্র ৫০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন।

নোয়াখালিতে বৃদ্ধাশ্রম প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ: নোয়াখালী জেলার চাটখিল উপজেলার বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজসেবক ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি তাঁর পৈত্রিক নিবাস চাটখিল উপজেলার গোমাতলী গ্রামের ডা.  সুলতান মাহমুদ ভবনে বৃদ্ধানিবাস ও ফ্রি ডক্টরস চেম্বারের কার্যক্রম শীঘ্রই উদ্বোধন করতে যাচ্ছেন। গত ২৪ মার্চ,২০১৮ ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টির পক্ষে ডা. সিরাজুল ইসলাম বৃদ্ধা নিবাসের সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট ইয়াসিন করিম এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

ডা. রুবাইয়াত ইসলাম মন্টি বলেন, আমি ‘দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণে রাজনীতি’ এই ব্রত নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই ।নতুন নতুন শিল্প ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠিত করে কর্ম সংস্থান সৃষ্টি করে ক্রমবর্ধমান বেকারত্ব দূরীকরণে ভূমিকা রেখে দেশের কল্যাণে অবদান রাখতে চাই। তনি বলেন, বিশ্বের দ্বিতীয় সেরা প্রধানমন্ত্রী হিসেবে স্বীকৃত, গণতন্ত্রের মানসকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে উন্নত দেশের মানচিত্রে এগিয়ে নিতে চাই। ইতিমধ্যে মমতাময়ী নেত্রী প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা স্বল্পোন্নয়ন থেকে আমরা উন্নয়নশীল দেশে প্রবেশ করেছি। যা আমাদের স্বপ্ন যাত্রার পথকে আরো অগ্রসর ও গতিশীল করেছে।

তিনি মনে করেন, নিজের বিলাসিতার জন্য সম্পদ অর্জন নয়; অর্জিত সম্পদ মানবতার কল্যাণে ব্যয় করার মাধ্যমে আত্মতৃপ্তি লাভ করার চেষ্টা করি।তিনি অসহায়, সুবিধা বঞ্চিত ও সমাজের খেটে খাওয়া নিরীহ মানুষের পাশে সহযোগীতা নিয়ে দাঁড়াতে পারলে আত্ম তৃপ্তি পান।

লেখক পরিচিতি: পাবলিক রিলেশন অফিসার ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হসপিটাল লি:।