গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন স্থগিতাদেশে সিপিবি’র ক্ষোভ

3

যুগবার্তা ডেস্কঃ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতার রিটের প্রেক্ষিতে উচ্চ আদালতের আদেশে নির্বাচন কমিশন কর্তৃক গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন স্থগিত করায় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড মো. শাহ আলম আজ এক বিবৃতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

সিপিবি নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে বলেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় কর্তৃক সাভারের শিমুলিয়ার ছয়টি মৌজাকে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনে অন্তর্ভুক্ত করে প্রজ্ঞাপন জারি করার দুই মাস পর এবং নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী ভোট গ্রহণের মাত্র ৯ দিন আগে আওয়ামী লীগ নেতার রিটের প্রেক্ষিতে নির্বাচন স্থগিত করায় জনগণের মধ্যে এই ধারণাই স্পষ্ট হয়েছে যে, নির্বাচনে পরাজয়ের আশংকায় ক্ষমতাসীন দল ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচনের মতো গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন স্থগিত করে দিয়েছে।

নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে বলেন, নির্বাচন কমিশন কোনোভাবেই তার দায়িত্ব এড়াতে পারে না। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পূর্বেই এই সমস্যার নিষ্পত্তি করার বাঞ্ছনীয় ছিল। এই স্থগিতাদেশ নির্বাচন কমিশনের যোগ্যতা ও ক্ষমতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। একইসঙ্গে নির্বাচন কমিশন জনগণের কাছে আরও অগ্রহণযোগ্য হয়ে পড়ল।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে একটার পর একটা নির্বাচন স্থগিত করার বিষয়টি ক্ষমতাসীন দলের দুরভিসন্ধি প্রকাশ করছে। নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার আশংকায় আতংকিত আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার ছকবদ্ধ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পাঁয়তারা করছে এবং দেশকে গভীর সংকটের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। জনগণকে ঐক্যবদ্ধভাবে সব চক্রান্তের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।