আজ ৯০ দিন

111

নাসরীন খান লিপিঃ আমার বাবাইটা আমাদের ফাঁকি দিয়ে চলে গিয়েছে।

১৯৮৯ এর ২৯ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল ০৯.১৫ টায় আমার দাদীবাড়ি সাতক্ষীরার রসুলপুর গ্রামের পশ্চিমের ঘরটাকে আলোকিত করে ও আসে আমার কোলে। (কিন্ডারগার্টেনে ভর্তির সময় স্কুল কতৃপক্ষ ১৯৯২ জন্ম সাল দিয়েছিল– কেন জানিনা)

৯০ দিন বয়স পর্যন্ত ও দিনের বেলা বেশিরভাগ সময় ঘুমাতো আর সারারাত কাঁদতো, ঘুমাতো না।

তোকে বুকে জড়িয়ে ধরে সারারাত হাঁটাহাঁটি করতো তোর বাবা, আমার মেজো বোন কুমকুম, তোর ছোট নানুবুজি, তোর রানু ( মেজোচাচী), এমনকি আমার বৃদ্ধ দাদী। ২/৩দিন পর থেকে আমিও যোগ দিলাম। ৯১ দিন থেকে লক্ষীসোনা রাতে কান্নাকাটি বন্ধ করলি। নিয়মমাফিক চললো তোর জীবনের পথচলা।

কিন্তু আমাকে এ কোন অনিয়মের মাঝে ফেলে গেলি পাপান আমার???

৯০ দিন আমিও তোর জন্য প্রায় সারারাতই কাঁদি। আরও কত ৯০ দিন, ৯০ মাস, বছরের পর বছর চলে যাবে ; জলস্রোত শেষ হবে আমার শেষ হবার সাথে। হয়তো তাও হবে না — থেকে যাবে ইথারে – যতদিন থাকবে পৃথিবী।-লেখক: একজন সন্তান হারা মা।