ক্ষমতা আমার কাছে দেশের সেবা করার সুযোগ, জনগণের সেবা করার সুযোগ- পরিকল্পনা মন্ত্রী

3

যুগবার্তা ডেস্কঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল এদেশের মানুষের মুখে হাসি ফুটানো। ক্ষুধা ও দারিদ্র্য মুক্ত দেশ গড়ার জন্যই দেশ স্বাধীন করেছিলেন। জাতির পিতার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে আমরা মানুষ ও দেশের সেবায় কাজ করে যাচ্ছি। আমরা ব্যবসা করতে আসিনি, আমরা মানুষের সেবা করতে এসেছি। তাই আওয়ামী লীগ যখন ক্ষমতায় আসে, তখন দেশ খাদ্য স্বয়ংসম্পূর্ণ হয় এবং দেশের মানুষ পেট ভরে খেতে পায়। যদি অন্য কেউ ক্ষমতায় আসে, উন্নয়নের এই ধারা ধরে রাখতে পারবে কি না, সেটা নিয়ে সন্দেহ আছে। পারবে না, কারন অতীত ইতিহাস আমরা ভুলিনি।ক্ষমতাটা আমার কাছে দেশের সেবা করার সুযোগ, জনগণের সেবা করার সুযোগ। আমরা সেই কাজ করি, যাতে দেশের মানুষের উন্নয়ন ঘটে। তাদের ভাগ্য পরিবর্তন ঘটে। যারা ক্ষমতাকে ভোগবিলাসের মনে করে, তারা দেশকে কিছু দিতে পারে না, পারেনি, পারবে না। ইলেকশন কমিশন এ ঘোষণা দিয়েছে, নির্বাচন হবে এ বছরের ডিসেম্বরে। যদি জনগণ আমাদের যদি নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে সরকার গঠনের সুযোগ দেয়, তাহলে আমরা ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হিসেবে উন্নীত হব। আমরা না এসে অন্য কেউ এলে তারা কিন্তু তা করতে পারবে না।

আজ শনিবার বিকাল ৩টায় কুমিল্লার সদর দক্ষিণ ‍উপজেলার চৌয়ারা ইউনিয়নের বামিশা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণে মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, এফসিএ, এমপি এসব কথা বলেন।

মাননীয় মন্ত্রী আরো বলেন , প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হিরন্ময় নেতৃত্বে অর্জিত হয়েছে উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি অর্জন । পাশাপশি আরেকটি সুখবর হলো চলতি অর্থ বছরের ৯ মাসের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৬৫ শতাংশ । এটিও একটি অসাধারণ অর্জন। জিডিপিতে পর পর তিন বছর ৭ শতাংশের ওপরে প্রবৃদ্ধি অর্জন করার সক্ষমতা দেখিয়েছে বাংলাদেশ। আমাদের উদ্দেশ্য একটাই জাতির পিতার সোনার বাংলা বিনির্মাণ। একটি সুখ সমৃদ্ধিশালী মর্যাদাশীল দেশ। আমরা আমাদের এ সুযোগ্য নেত্রীর উপর নির্ভর করে অদূর ভবিষ্যতে উন্নত দেশে পরিনত হব।উন্নয়নের এ ধারাকে অব্যাহত রাখতে আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।জনগনকেই এ উন্নয়নের প্রবাহ ধরে রাখতে হবে- তাদেরকে আমাদের আরেকবার সুযোগ দিতে হবে। উন্নয়নের এ ধারাকে আরো বেশী বেগবান এবং শিখরে পৌছে নিয়ে যাওয়ার জন্য আওয়ামীলীগেকে্ আবার নির্বাচিত করে শেখ হাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী করতে হবে।