সংবিধানের সপ্তদশ সংশোধনী সম্পর্কে সিপিবির প্রতিক্রিয়া

8

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম বুধবার এক বিবৃতিতে জাতীয় সংসদে সরকারের পক্ষ থেকে উত্থাপিত সপ্তদশ সংবিধান সংশোধনী প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে সংরক্ষিত নারী আসনের মেয়াদ আরো ২৫ বছর বহাল রাখাকে যুক্তিযুক্ত মনে করলেও সংরক্ষিত আসন সংখ্যা মোট সংসদ সদস্যের এক-তৃতীয়াংশ এবং সংরক্ষিত নারী আসনে সরাসরি নির্বাচনের বিধান এর দাবি জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ সপ্তদশ সংবিধান সংশোধনীতে সংরক্ষিত নারী আসন প্রসঙ্গ ছাড়াও নির্বাচনকালীন সময়ে সরকারের কর্তৃত্বকে সংকুচিত করে অন্তবর্তীকালীন কাজ, তত্ত্বাবধায়নমূলক ও অত্যাবশ্যক রুটিন কাজে সীমাবদ্ধ রাখার বিধান সংযোজনের দাবি জানান।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বস্তুতঃ সংবিধানের ১২৬ অনুচ্ছেদে এই বিষয়টি পরোক্ষভাবে আছে। নির্বাচন ব্যবস্থার ওপর জনগণের বিশ্বাস লুপ্ত পাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সেই বিষয়টিকেই সুনির্দিষ্টভাবে সংবিধান সংশোধনের মাধ্যমে স্পষ্ট করা প্রয়োজন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশের নারী সমাজসহ সর্বস্তরের দীর্ঘদিনের দাবি হলো সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে সরাসরি নির্বাচন ও আসন সংখ্যা ন্যূনতম এক-তৃতীয়াংশ করা। এমনকি ইউনিয়ন পর্যায়েও সংরক্ষিত নারী আসনে সরাসরি নির্বাচন হচ্ছে। এমতাবস্থায় জাতীয় সংসদে সরাসরি নির্বাচনে বিধান আরও গুরুত্বপূর্ণ ও প্রয়োজনীয়। এটি না হলে ঐ সংরক্ষিত নারী আসন কার্যত ‘দলীয় আধিপত্য বিস্তার এর অলংকারিক’ পদে পরিণত হয়।

বিৃবতিতে বলা হয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সংবিধানে স্পষ্ট বক্তব্য থাকার দাবি সচেতন মহলের। তাই একই সপ্তদশ সংশোধনীতে জাতীয় সংসদ-এর নির্বাচনকালীন সময়ে ‘নির্বাচনকালীন সরকারের’ কর্মকান্ডের স্পষ্ট বিধান সংযোজন করাও একান্ত প্রয়োজন বলে মনে করে।