এমন দেশ কি আমাদের চাওয়া ?

7

শেখ মামুনঃ কোথাও একটু শান্তি নেই । স্বস্তি নেই । সরকার আছে । রাষ্ট্র চলছে । উন্নয়ন হচ্ছে । ফলন বাড়ছে । বেতন বাড়ছে । বাড়ছে রিজার্ভ, রেমিট্যান্স । আয়-উপার্জনও । ব্যাংক-বীমা হচ্ছে । স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসাও পাল্লা দিয়ে বাড়ছে । তেল-গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ছে । বাড়ছে জীবন ও জীবীকার ব্যয় । বাড়ছে, আরও বাড়বে । বারুক; সমস্যা নেই ।

রাজনীতির সুবাদে কেউ কেউতো এখন কলা গাছ থেকে বট গাছে পরিনত হচ্ছে । অনেকের ঘরে এখন আলাদীনের চ্যারাগ । ঘষা দিলেই ডলার পাউন্ড বের হয় । দু’দিন আগেও যে অন্যদল করতো- সেও এখন শাসকদলের বড়ো সাপোর্টার । বিরোধীপক্ষ বলে আর এদেশে কিছু নেই । এ নিয়ে কারও কোনও হতাশা নেই । কোনও প্রতিবাদও নেই । সবাই চুপচাপ । স্থির ও শান্ত ।

তবুও কেনো শান্তি নেই, স্বস্তি নেই ? বিউটি ধর্ষিত হয় । পরকীয়ার বলি হয় রথিশ । শিক্ষক ধর্ষণ করে ছাত্রীকে । কি মাদ্রাসার শিক্ষক, কি প্রাইমারীর শিক্ষক, কি কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক । সুযোগ পেলেই দন্ড দাড়িয়ে যায় পুরুষের । দুই বাসের ধাক্কাধাক্কিতে হাত কাটা পড়ে যুবকের । জীবন যায় সাধারণ মানুষের ।

তরুণ-তরুনী, যুবক-যুবতী, স্বামী-স্ত্রী কিংবা প্রেমিক-প্রেমিকা । একা কি দোকলা, কোথাও আজ তারা নিরাপদ না । কোথাও ঘুরতে যাবেন- সেখা‌নে অনিরাপদ । ঘরে থাকবেন- অনিরাপদ । দিনে-রাতে অনিরাপদ । ব্যাংকে টাকা রাখবেন- অনিরাপদ । শেয়ারবাজারে পুঁজি বিনিয়োগ করবেন- অনিরাপদ । জীবনে, বেঁচে থাকায়, আড্ডায়, গানে- সর্বত্র আমি আমরা অনিরাপদ ।

কোথাও কি আপনি-আমি নিরাপদ ? নই । যার টাকা আছে- সেও অনিরাপদ । যার নেই- সেও অনিরাপদ । এমন দেশ কি আমাদের চাওয়া ? জানিনা । উত্তর মিলছেনা । মিলবে কবে ? তাও জানিনা ।-লেখক: একজন সাংবাদিক।