কপাল নাটক দিয়ে শেষ হল আলোর পথযাত্রী

0

যুগবার্তা ডেস্কঃ দেশের অন্যতম শিশু-কিশোর নাট্য দল কাব্য বিলাসের কপাল নাটকের মধ্য দিয়ে শেষ হল দু-দিনের আলোর পথযাত্রী অনুষ্ঠান। ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস ও ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে গীতাঞ্জলি ললিতাকলা একাডেমী রাজধানীর উত্তরার আয়োজন করে দু’দিনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে সমাপনী দিনের সাংস্কৃতিক ও নাট্য উৎসব উপভোগ করেন। রাহুল রাজ এর রচনা ও নির্দেশনায় কপাল নাটকে উঠে আসে নদী ভাঙ্গা মানুষের জীবনের প্রতিচ্ছবি। দর্শকদের মুহুর মুহুর করতালিতেই বোঝা যাচ্ছিল যান্ত্রিক জীবনের মানুষ সুস্থ্যধারার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য কতটা ব্যাকুল। গীতাঞ্জলি ললিতাকলা একাডেমীর পরিচালক মাহবুব আলম মিঠু প্রধান অতিথির দৃষ্টি আকর্ষণ করে উত্তরায় একটি স্থায়ী মুক্তমঞ্চ ও শহীদ মিনারের জোর দাবি জানান।
কপাল নাটকের নির্দেশক রাহুল রাজ জানান, নদী ভাঙলে ভাগ্যহত মানুষের কপালে কি কালো ছায়া নেমে আসে, সেটাই আমি এই কপাল নাটকের মধ্য দিয়ে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। তিনি আরো জানান, আগামী জাতীয় শিশু-কিশোর নাট্য উৎসবে কাব্য বিলাস এই কপাল নাটক নিয়ে অংশগ্রহণ করবে।
নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছে, নোঈম ইসলাম, হৃদয়, অন্তর সরকার, জেনিষা, রিজন, পারিষা, রাকিব, সজীব, রাসেল, শরিফসহ আরো অনেকে।
উল্লেখ্য ‘প্রতিভার প্রতিক্ষায় নতুনের জয়গান’ এই শ্লোগানে কাব্য বিলাস নাট্য গোষ্ঠী বিগত ১১ বছর যাবৎ নিয়মিত অপ সাংস্কৃতিক রোধে দেশ ও আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে সমাজ সচেতন ও ভিন্ন ধারা নাটক মঞ্চায়ন করে যাচ্ছে।