বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুরের মধ্যে দু’টি সমঝোতা চুক্তি হয়েছে

4

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশ ও সিঙ্গাপুরের মধ্যে পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ (পিপিপি) এবং উড়োজাহাজ চলাচলে সহযোগিতা সংক্রান্ত দু’টি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর হয়েছে।

সিঙ্গাপুর সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেশটির প্রধানমন্ত্রী লি শিয়েন লুংয়ের দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পর সোমবার স্থানীয় সময় দুপুরে দুই নেতার উপস্থিতিতে এ স্মারক দু’টি সই হয়।

সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ‘ইস্তানা’র ওয়েস্ট ড্রয়িং রুমে বেলা ১২টার (বাংলাদেশ সময় ১০টা) কিছুক্ষণ আগে বৈঠকে বসেন শেখ হাসিনা ও শিয়েন লুং।

বৈঠক শেষে তাদের উপস্থিতিতে দু’দেশের মধ্যে উড়োজাহাজ চলাচলে সহযোগিতার বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক এবং পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপে (পিপিপি) সহযোগিতা বিষয়ে আরেকটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।‘ইস্তানা’য় বৈঠকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি শিয়েন লুংপ্রথম স্মারকে বাংলাদেশের পক্ষে বিমান পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব এসএম গোলাম ফারুক ও সিঙ্গাপুরের পক্ষে পরিবহন মন্ত্রণালয়ের পারমানেন্ট সেক্রেটারি হল এমগ্যাই সেঞ্জ সই করেন।

আর দ্বিতীয় স্মারকে সই করেন বাংলাদেশের পক্ষে পিপিপি অথরিটির সিইও সৈয়দ আফসর এইচ উদ্দিন ও সিঙ্গাপুরের পক্ষে ইন্টারন্যাশনাল এন্টারপ্রাইজের অ্যাসিস্ট্যান্ট সিইও তান সুন কিন।

শিয়েন লুংয়ের সঙ্গে বৈঠকের আগে শেখ হাসিনা ‘ইস্তানা’য় সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট হালিমা ইয়াকুবের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। তারও আগে ‘ইস্তানা’য় পৌঁছালে প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার দেয় সিঙ্গাপুরের সশস্ত্র বাহিনী। এসময় দু’দেশের জাতীয় সংগীত বাজানো হয়।

শিয়েন লুংয়ের আমন্ত্রণে চার দিনের সরকারি সফরে ১১ মার্চ সোববার দুপুরে সিঙ্গাপুর যান প্রধানমন্ত্রী।