বিএনপি রাজনীতির বিষবৃক্ষ–ইনু

28

যুগবার্তা ডেস্কঃ বিএনপি রাজনীতির বিষবৃক্ষ, রাজাকার-জঙ্গী-অপরাধী উৎপাদন-পুনরুৎপাদনের কারখানা বলে মন্তব্য করেছেন জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী
হাসানুল হক ইনু।

কাজী আরেফ আহমেদের ১৯তম হত্যাবার্ষিকী উপলক্ষে শুক্রবার বিকালে নগরীর শহীদ কর্নেল তাহের মিলনায়তনে জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, স্থায়ী কমিটির সদস্য মোশাররফ হোসেন, প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, সহ-সভাপতি আফরোজা হক রীনা, কাজী আরেফ আহমেদের ভ্রাতুস্পুত্রী কাজী সালমা সুলতানা, শফি উদ্দিন মোল্লা, শহীদুল ইসলাম, মোহর আলী চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. হাবিবুর রহমান শওকত, নাদের চৌধুরী, নুরুল আখতার, ওবায়দুর রহমান চুন্নু, শওকত রায়হান, নইমুল আহসান জুয়েল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাসদের সাধারণ সম্পাদক এড. মুহিবুর রহমান মিহির, ঢাকা মহানগর পূর্ব জাসদের সাধারণ সম্পাদক এ কে এম শাহ আলম প্রমূখ।
সভাপতির ভাষণে জনাব হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত শক্তি তাদের পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতেই বাংলাদেশের রাজনীতিতে বিষবৃক্ষ হিসাবে বিএনপিকে রোপন করেছিল। সামরিকতন্ত্র, রাজাকারতন্ত্র, পাকিস্তানপন্থী, সাম্প্রদায়িকতা, মৌলবাদ, জঙ্গীবাদের সংমিশ্রণে গঠিত বিএনপি বাংলাদেশের রাজনীতির বিষবৃক্ষ।

জনাব ইনু শহীদ কাজী আরেফ আহমেদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, এই বিষবৃক্ষের অভিশাপ থেকে বাংলাদেশকে মুক্ত করতে শহীদ কাজী আরেফ আহমেদ ৭৫ পরবর্তীতে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তির বৃহত্তর ঐক্যের তত্ত্ব নির্মাণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার বিচার-সাজার পর আবার জামাতসহ ২০দল নিয়ে মাঠে নেমে বিএনপি প্রমাণ করেছে বিএনপি কখনোই বদলাবে না। বিএনপি সাম্প্রদায়িকতা-জঙ্গীবাদ-মৌলবাদ উৎপাদন-পুনরুৎপাদনের কারখানা। জনাব ইনু বলেন, দেশে শান্তি-উন্নয়ন-গণতন্ত্র-সাংবিধানিক শাসনের ধারা বহাল রাখতে হলে রাজনীতি ও নির্বাচনের মাঠে বিএনপিকে পরাজিত করতে হবে, ক্ষমতার বাইরেও রাখতে হবে।

জাসদের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা কাজী আরেফ আহমেদের ১৯তম হত্যাবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ শুক্রবার দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে। এ সব কর্মসূচির মধ্যে ছিল ভোর ৬ টায় জাসদ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন ও দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ। সকাল ৮ টায় মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ সংলগ্ন বীর মুক্তিযোদ্ধা কবরস্থানে শহীদ কাজী আরেফের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।
সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদনশেষে বীর মুক্তিযোদ্ধা কবরস্থান চত্বরে জাসদ ঢাকা মহানগর পশ্চিম কমিটির উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।