মিরপুরে সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ২৮৮টি আবাসিক ফ্ল্যাট

0

যুগবার্তা ডেস্কঃ রাজধানীর মিরপুরে সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ২৮৮টি আবাসিক ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হবে। এ প্রকল্পটির প্রাক্কলিত ব্যয় হবে ২৯০.৫০ কোটি টাকা। আজ রোববার একনেক বৈঠকে এ প্রকল্পটি অনুমোদন করা হয়।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা মহানগরীতে সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের আবাসন ব্যবস্থাপনা দীর্ঘকাল থেকেই চাহিদার তুলনায় বেশ ঘাটতি। সাম্প্রতিককালে সম্পাদিত উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ সরকারের কাজের পরিধি পূর্বের তুলনায় বহুগুণে বৃদ্ধি পাওয়া এবং প্রজাতন্ত্রের সেবাসমূহ জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে সরকারের নতুন নতুন অধিদপ্তর, পরিদপ্তর, সংস্থা সৃষ্টির মাধ্যমে তাদের বিভিন্ন পর্যায়ের দপ্তরে প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ করা হয়েছে। সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীদের সংখ্যা বহুগুণে বৃদ্ধি পেলেও সরকারি আবাসন সুবিধা সেই পূর্বের পরিমাণে রয়ে যাওয়ায় বর্তমানে আবাসন সংকট প্রকট আকার ধারণ করেছে।

সরকারি আবাসন পরিদপ্তরের প্রদত্ত তথ্যমতে ঢাকা মহানগরীতে পদায়িত ১,৪৮,৯১৫ জন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাত্র ৮% আবাসন সুবিধা পেয়ে থাকেন। এ লক্ষ্যে “ঢাকাস্থ মিরপুর ৬নং সেকশনে সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য ২৮৮টি আবাসিক ফ্ল্যাট নির্মাণ” প্রকল্পটি গ্রহন করা হয়েছে। এ প্রকল্পটির প্রাক্কলিত ব্যয় ২৯০.৫০ কোটি টাকা। এর পুরোটাই জিওবি। এটি গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের আওতায় গণপূর্ত অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়িত হবে। প্রকল্পটি ২০২০ সালের জুন মাসের মধ্যে বাস্তবায়িত হবে। রোববার একনেক বৈঠক শেষে প্রেস ব্রিফিং এ এসব কথা জানান পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

আজকের একনেকের আরেকটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প হলো “উপজেলা ও ইউনিয়ন সড়কে দীর্ঘ সেতু নির্মাণ” প্রকল্প। এ প্রকল্পটির প্রাক্কলিত ব্যয় ২২৮৭.৬৫ কোটি টাকা। এর পুরোটাই জিওবি। এটি স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়িত হবে। প্রকল্পটি ২০২০ সালের জুনের মধ্যে বাস্তবায়িত হবে।