হলিউডে বন্ধুত্বের গল্প

8

বিনোদন প্রতিবেদক:

ভাঙন আর বিচ্ছেদের গল্প হলিউড আলোঝলমল দুনিয়াতেই বেশি লক্ষণীয়। ক্যারিয়ারের চরম প্রতিদ্বন্দ্বিতার মধ্য দিয়ে এগিয়ে যেতে হয় হলিউড তারকাদের। কে কাকে ছাপিয়ে যাবেন, সে চেষ্টাতেই যেন ব্যস্ত এ অঙ্গনের তারকারা।

তবে এর বিপরীত চিত্রও কিন্তু আছে। বছরের পর বছর বন্ধুত্ব ধরে রেখেছেন এমন তারকার সংখ্যাও এ অঙ্গনে কম নয়। যারা কাজ আর ব্যস্ততার মাঝেও সময় বের করে নিজেদের মতো করে সময় কাটান।

দিনের পর দিন সম্পর্কের উদাহারণ হয়ে থাকছেন। সেসব হলিউড তারকা বন্ধু জুটির মধ্যে রয়েছেন মেল গিবসন ও রবার্ট ডাউনি জুনিয়র। নব্বইয়ের দশকে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘এয়ার আমেরিকা’ ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন মেল গিবসন ও রবার্ট ডাউনি জুনিয়র।

একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে দারুণ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে তাদের মধ্যে। গিবসনের বিবাহবিচ্ছেদের কঠিন সময়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন ডাউনি। অন্যদিকে গিবসন ডাউনিকে মাদকাসক্তির পথ থেকে ফিরে আসতে সহায়তা করেছিলেন। জেনিফার অ্যানিস্টন ও কোর্টনি কক্সও বন্ধুত্বের বিরল নজির গড়েছেন।

১৯৯৪ সালে জনপ্রিয় টিভি শো ‘ফ্রেন্ডস’-এর সেটে কাজ করতে গিয়ে বাস্তব জীবনেই তারা ‘ফ্রেন্ড’ হয়ে যান। বিপদে-আপদে সব সময় একসঙ্গে তাদের দেখা যায় এখনও। লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও ও টোবি ম্যাগুইয়ারের বন্ধুত্বের গল্পও দারুণ।

অডিশন দিতে গিয়ে প্রথম সাক্ষাৎ হয় এ দু’জনার। এক সাক্ষাৎকারে ডি ক্যাপ্রিও বলেছেন, “এক অডিশনে টোবির সঙ্গে পরিচয়ের পর মনে হয়েছিল আমি এর বন্ধু হতে চাই। শুটিং চলার সময় এক দৃশ্যে আমি গাড়ি থেকে লাফ দিলাম। আমি চেঁচিয়ে বললাম, ‘টোবি, টোবি, টোবি তোমার নম্বরটা দিয়ে যাও। তুমি আবার কোত্থেকে এলে?’ এমন ভাব করে টোবি আমার দিকে তাকিয়েছিল।”

সেই থেকে এখনও বন্ধুত্বের শক্ত বন্ধন ধরে রেখেছেন লিও-টোবি। কেইরা নাইটলি ও সিয়েনা মিলার বন্ধুত্ব শুরু হয় একই ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে। ২০০৯ সালে মুক্তি পাওয়া ‘দ্য এজ অব লাভ’ ছবিতে অভিনয় করেন এ দুই তারকা।

ছবির সেট থেকেই তাদের বন্ধুত্বের শুরু। হলিউডের আরও দুই তারকা সেলেনা গোমেজ ও ডেমি লোভাটো বেশ কাছের বন্ধু। সাত বছর বয়সে ‘বার্নি অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’ টিভি শোতে তাদের পরিচয় হয়।

মাঝে কিছু ভুল বোঝাবুঝির কারণে দূরত্ব সৃষ্টি হলেও বেশিদিন দূরে থাকতে পারেননি তারা। সব ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে আবার এসেছেন কাছাকাছি। বন্ধুত্ব হয়েছে আরও গভীর।

জনপ্রিয় টিভি তারকা কিম কার্দাশিয়ান ও কিংবদন্তি গায়িকা লিওনেল রিচের কন্যা নিকোল রিচের মধ্যেও প্রবল বন্ধুত্ব। সামাজিক মাধ্যমে তাদের কথা কাটাকাটি নিয়ে নিজেদের সম্পর্ক প্রশ্নবিদ্ধ হলেও তাদের বন্ধুত্বের চাকা এখনও সচল।

জাস্টিন টিমবারলেক ও রায়ান গসলিংয়ের প্রথম পরিচয় হয় ১৯৯০ সালে জনপ্রিয় টিভি শো ‘দ্য মিকি মাউস ক্লাব’-এর মাধ্যমে।