আখেরী মোনাজাত আজ

3

যুগবার্তা ডেস্কঃ আখেরি মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে আজ বিশ্ব ইজতেমার ৫৩ তম প্রথম পর্ব শেষ হচ্ছে।

সকাল সাড়ে ১১ টায় আখেরি মোনাজাত শুরু হবে। বয়ানের মধ্যে দিয়ে এই প্রথম বারের মত বাংলায় আখেরি মোনাজ পরিচালনা করবেন কাকরাইল মসজিদের ইমাম মাওলানা হাফেজ মোহাম্মদ যোবায়ের। তার আগে বয়ান করবেন মাওলানা আব্দুল মতিন।

ইজতেমায় সাধারনত দিল্লীর মারকাজ থেকে আসা মুরব্বীরা আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করতো। আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করে আসা যোবায়ের হাসান মারা গেলে ২০১৪ সালে সাদ কান্ধলভী মোনাজাত পরিচালনা করতেন। এবারে প্রচন্ড বিরোধ দেখা দেওয়ায় সাদ ইজতেমায় অংশ না নিয়েই গতকাল শনিবার দুপুরে জেট এয়ারে দিল্লী চলে যেতে বাধ্য হন।

আজ আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। আগামী ১৯ জানুয়ারি শুরু হবে দ্বিতীয় পর্ব। দ্বিতীয় পর্বে অন্য ১৬ জেলার মুসল্লিরা অংশ নেবে। এবারের ইজতেমায় বিশ্বের শতাধিক দেশের ১০ হাজারের বেশি মেহমান অংশগ্রহণ করা আশা প্রকাশ করেছে আয়োজককারিরা।

ইজতেমার সার্বিক কার্যক্রম মনিটরিং করতে গাজীপুর সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসন, র‌্যাব, পুলিশ, আনসার ও ভিডিপির পাঁচটি কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে।

যেসব সড়কে যান চলাচল নিষেধ : তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল রেইনবো ক্রসিং থেকে আব্দুল্লাহপুর হয়ে ধউড় ব্রিজ পর্যন্ত। প্রগতি সরণি ক্রসিং থেকে রামপুরা ব্রিজ। প্রগতি সরণি ক্রসিং থেকে আব্দুল্লাহপুর। আব্দুল্লাহপুর থেকে ধউর ব্রিজ, আশুলিয়া ব্রিজ থেকে আব্দুল্লাহপুর-প্রগতি সরণি ও টঙ্গী ব্রিজ থেকে গাজীপুর চৌরাস্তা পর্যন্ত সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে বিমানযাত্রী ও ক্রু বাহী যান, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ও অ্যাম্বুল্যান্স চলতে পারবে।

যেসব সড়কে যানবাহন চলবে : ঘোড়াশাল থেকে কালীগঞ্জ-পূবাইল হয়ে আসা যানবাহন টঙ্গী রেলওয়ে স্টেশনের পূর্ব মারকুল (কে-২) পর্যন্ত, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক থেকে ঘোড়াশাল হয়ে ঢাকাগামী সাধারণ যানবাহনগুলো ওই রাস্তা এড়িয়ে কাঁচপুর/যাত্রাবাড়ী সড়কে চলাচল করতে পারবে। ইজতেমায় গমনেচ্ছুক মুসল্লি, উত্তরাবাসী, বিমানযাত্রী ও ক্রু বাহী যানবাহন, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গাড়ি ও অ্যাম্বুল্যান্স ছাড়া সব ধরনের যানবাহন বিমানবন্দর সড়ক পরিহার করে বিকল্প পথে মহাখালী-বিজয় সরণি হয়ে মিরপুর-গাবতলী সড়ক ব্যবহার করবে। ঢাকা মহানগর থেকে যেসব মুসল্লি হেঁটে ইজতেমাস্থলে যাবে তাদের হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর গোলচত্বর-আজমপুর-আব্দুল্লাহপুর হয়ে টঙ্গী ব্রিজ পরিহার করে তুরাগ নদীর ওপরে নির্মিত বেইলি ব্রিজ অথবা কামারপাড়া ব্রিজ দিয়ে ইজতেমাস্থলে যাতায়াত করতে বলা হয়েছে।

ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের সাংবাদিকদের দায়িত্ব পালনের সুবিধার্থে বিশ্ব ইজতেমা ময়দানের উত্তরপাশে নিউ মুন্নু ফাইন কটন মিলস মাঠে টঙ্গী থানা প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে একটি অস্থায়ী মিডিয়া সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। মিডিয়া সেন্টারে বিদ্যুৎ ও কম্পিউটারসহ সব ধরনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে দেশ-বিদেশের মুসল্লিদের নিরাপত্তার জন্য সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে র‌্যাবের ইন্টেলিজেন্স উইংয়ের সদস্যরা পুরো ময়দান পর্যবেক্ষণ করছেন।