কারন তিনি সৎ মানুষ

17

ফজলুল বারীঃ দেশটা আমাদের যে এখনো কতটা অমানবিক তা মোহাম্মদ ইউসুফকে দিয়ে আবার মনে করিয়ে দেয়া গেলো! রাংগুনিয়ার সাবেক এমপি মোহাম্মদ ইউসুফ চিকিৎসাবিহীন অনাথ জীবন যাপন করছিলেন! কারন তিনি সৎ মানুষ। বাজারি এমপিদের মতো বাড়ি গাড়ি সম্পদের পাহাড় তিনি গড়েননি। এমনকি নিজের একটা ব্যাংক একাউন্ট পর্যন্ত নেই। চিকিৎসার অভাবে তিনি এরমাঝে বাক শক্তি হারিয়েছেন। রাংগুনিয়ার বর্তমান এমপি ড হাসান মাহমুদ চিহ্নিত দুর্নীতিবাজ। প্রধানমন্ত্রী তাকে মন্ত্রিসভা থেকে বাদ দিয়েছেন। কিন্তু ড হাসান ঢাকায় প্রায় প্রতিদিন নানা বক্তৃতা দিয়ে বেড়ান! কোনদিন কোন একটি বক্তৃতায় বলেননি তার এলাকার সাবেক এমপি মোহাম্মদ ইউসুফ সৎ মানুষ, তাই অনাথ জীবন যাপন করছেন। হয়তো ইনি তা জানেনওনা। কারন তিনিতো একজন হাইব্রিড নেতা আওয়ামী লীগের। অত:পর পত্রিকা আর সোশ্যাল মিডিয়ার রিপোর্ট পড়ে এগিয়ে আসতে হয়েছে প্র্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন তৎপর হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ পেয়ে। তার চিকিৎসার দায় নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কী, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের আগে কী চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসনও বিষয়টি জানতোনা? না জানলেতো অকর্মা এই জেলা প্রশাসকের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া উচিত। প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ, মানবিক উদ্যোগটি নিয়েছেন। তার চিকিৎসা শুরুর পর যদি সুযোগ পাই আমার প্রিয় প্রজন্মদের নিয়ে তার জন্য কিছু করবো।-লেখক: সাংবাদিক ও কলামিস্ট।