৮৩ কিলোমিটার বেগে কালবৈশাখী

যুগবার্তা ডেস্কঃ প্রতিদিনকার মত স্বভাবসুলভ রোদ প্রখর আকারে দেখা দেয় সকাল থেকেই।ঠিক সন্ধ্যা ছয়টার কালো অন্ধকার নেমে আসে শুরু হয় কালবৈশাখী ঝড়।

আবহাওয়া অফিস সূত্র জানান, আজ রোববারের ঝড়ের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৮৩ কিলোমিটার। বজ্রমেঘ তৈরি হওয়ায় বাতাসের এই গতিবেগ ছিল ফরিদপুর, টাঙ্গাইলসহ ১৫ জেলায়। প্রচণ্ড ঝড়ে গাছ ভেঙ্গে সড়কের ওপর পড়েছে। বাড়িঘর ভেঙেছে দেশের বিভিন্ন জেলায়। রাজধানীতেও সড়কের ওপর গাছ পড়ায় বেশ কয়েকটি স্থানে গড়ি চলাচলে ব্যাহত হয়েছে।

আবহাওয়া অফিস সূত্র বরও বলেন, এপ্রিলের এই সময়ে প্রতিবছরই কালবৈশাখী ঝড় হয়। গতবারও তা-ই হয়েছে। বিশেষ করে বিকেল এবং সন্ধ্যার সময় কালবৈশাখী ঝড় আসে। এসময়ে সবাইকে সতর্কভাবে চলাচলে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

রোববারপ মতো সোমবারও দেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়, বৃষ্টি এবং দমকাসহ ঝড়ো বৃষ্টি হতে পারে। বিশেষ করে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগে বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হতে পারে। এর পাশাপাশি ঢাকা, বরিশাল, ময়মনসিংহসহ অন্যান্য বিভাগেও বৃষ্টি ও কালবৈশাখী ঝড় হতে পারে।

আজ রাজধানীতে ৫ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে। সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে মংলায় ৪৯ মিলিমিটার। সাতক্ষীরায় ৩৪ মিলিমিটার ও সিলেটে ২৯ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে। যশোর, খুলনা, কুমিল্লা নোয়াখালী, পটুয়াখালী বরিশাল, ভোলা, টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, কুষ্টিয়া জেলার ওপর দিয়ে ঘন্টায় ৮৩ কিলোমিটার বেগে কালবৈশাখী ঝড় বয়ে গেছে।