৭ দফা দাবিতে ২৬ নভেম্বর ‘মহাসমাবেশ’ সফলে পদযাত্রা

যুগবার্তা ডেস্কঃ তেল-গ্যাস-খনিজ স¤পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি ‘সুন্দরবনবিনাশী সকল চুক্তি বাতিলের দাবিতে আগামী ২৬ নভেম্বর ‘চলো চলো ঢাকা চলো’ স্লোগাণ ধারণ করে ‘মহাসমাবেশ’ সফল করার জন্য জাতীয় কমিটি ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে শুক্রবার বিকেলে পল্লবী সিনেমা হলের সামনে সমাবেশের মধ্য দিয়ে পদযাত্রা শুরু হয়ে মিরপুর ১০ নম্বর গোল চত্বরে সমাবেশ ও মিরপুর ১ নম্বরে সমাবেশের মধ্য দিয়ে শেষ হয়। সমাবেশগুলোতে সভাপতিত্ব করেন করেন জাতীয় কমিটি ঢাকা মহানগরের সমন্বয়ক জাহাঙ্গীর আলম ফজলু।
নেতৃবৃন্দ বলেন, দেশ ধ্বংসকারী রামপাল, রূপপুর, বাঁশখালী প্রকল্প করে বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান হবে না। বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান করতে হলে অবিলম্বে জাতীয় কমিটির ৭ দফা দাবি বাস্তবায়ন করতে হবে।
নেতৃবৃন্দ সরকারকে সুন্দরবধ্বংসী ভুমিকা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান। প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে সুন্দরবন বাংলাদেশকে বাঁচায় তাই সুন্দরবন রক্ষা আমাদের জাতীয় কর্তব্য।
সমাবেশগুলোতে আরও বক্তব্য রাখেন ডা. সাজেদুল হক রুবেল, তৈমুর আলম খান অপু, জুলফিকার আলী, মনিরউদ্দিন পাপ্পু, শহীদুল ইসলাম সবুজ, মীর মোফাজ্জেল হোসেন মোস্তাক, ফখরুদ্দিন কবির আতিক, মাইনুদ্দিন চৌধুরী লিটন, রাসেল ইসলাম সুজন প্রমুখ।
নেতৃবৃন্দ বলেন, যত বাঁধা প্রদান করা হোক না কেন সারাদেশে সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলন বেগবান হবে। সুন্দরবনকে ঘিরে ভুমি ও বনগ্রাসীদের অপতৎপরতা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নাসিরনগরের সংখ্যালঘুদের মন্দির ও ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে আদিবাসীদের ওপর হামলা একই স্বার্থান্বেষীগোষ্ঠীর ঘটানো।
নেতৃবৃন্দ আগামী ২৬ নভেম্বর শহীদ মিনারে জাতীয় কমিটির মহাসমাবেশ সফল করার মধ্য দিয়ে সুন্দরবন রক্ষার আন্দোলনকে অগ্রসর করার আহ্বান জানান।