১৬ হাজার টাকা নিম্নতম মজুরির দাবিতে পদযাত্রা

যুগবার্তা ডেস্কঃ গার্মেন্ট শ্রমিকদের চলমান মজুরি বৃদ্ধির আন্দোলনে কেন্দ্রিয় কর্মসূচী হিসেবে শুক্রবার বিকেল রাজধানীর মালিবাগ রেলগেট থেকে মধ্য বাড্ডা লুৎফুন টাওয়ার পর্যন্ত পদযাত্রা কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ কর্মসূচির মাধ্যমে গার্মেন্ট শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র ঘোষিত সকল শিল্পাঞ্চলে পদযাত্রা কর্মসূচী আজ থেকে শুরু হয়েছে।

পদযাত্রা পূর্ব সমাবেশে শ্রমিক নেতৃবৃন্দ বলেন, অবিলম্বে শ্রমিকদের নিম্নতম মূল মজুরি ১০ হাজার টাকা, মোট মজুরি ১৬ হাজার টাকা নির্ধারণ করা এবং সোয়েটারের পিসরেটসহ সকল গ্রেডে শ্রমিকের একই হারে মজুরি বৃদ্ধি করতে হবে। নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মজুরি বোর্ডের কার্যক্রম বিলম্ব হচ্ছে। নতুন মজুরি বোর্ড ঘোষিত হওয়ার দুই মাসের বেশী অতিক্রান্ত হলেও গেজেট প্রকাশে বিলম্ব এবং এখন পর্যন্ত কোন সভা অনুষ্ঠিত না হওয়ায় আইন অনুসারে ছয় মাসের মধ্যে বোর্ডের কার্যক্রম সম্পন্ন করার বিষয়টি নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। নেতৃবৃন্দ একই সাথে শ্রমিক ও গার্মেন্ট টিইউসি নেতৃবৃন্দের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং কারাবন্দী আশিয়ানা গার্মেন্ট কারখানার শ্রমিক রাসেল ও মুন্নার মুক্তি দাবি করেন। সমাবেশ থেকে কারখানাটিতে ট্রেড ইউনিয়ন গঠন করার কাজে নেতৃত্ব দেয়ায় বরখাস্ত ২৬ শ্রমিককের বরখাস্ত আদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়। সমাবেশ শেষে বিপুল সংখ্যক শ্রমিক পদযাত্রায় অংশ নেয়।

শ্রমিকনেতা দিদারুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শ্রমিকনেতা হাবিব রিফাতের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত পদযাত্রা পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, গার্মেন্ট টিইউসি’র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শ্রমিকনেতা মঞ্জুর মঈন, বাংলাদেশ বিপ্লবী সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের দপ্তর সম্পাদক শ্রমিকনেতা হযরত আলী, বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়নের সভাপতি আবুল হাশেম কবির, গার্মেন্ট শ্রমিক নেতা শিল্পী আক্তার, নাজমুল ইসলাম, আবু বকর সিদ্দীক, জাহাঙ্গীর আলম, যুবনেতা জাহিদ নগর, ছাত্রনেতা বিল্লাল হোসেন প্রমুখ।