১০ টাকা কেজির চাল বিতরণে অনিয়ম বন্ধ করতে হবে

যুগবার্তা ডেস্কঃ ‘খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি’র মাধ্যমে হতদরিদ্র মানুষের জন্য ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণে অনিয়ম-দুর্নীতি ও লুটপাটের প্রতিবাদে এবং ৬ কোটি ক্ষেতমজুরসহ গ্রামীণ মজুরদের পল্লী রেশনের মাধ্যমে চাল, ডাল, তেল, লবণ ও চিনি বিতরণের দাবিতে বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতির উদ্যোগে বুধবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তারা বলেন, হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত চাল সরকারি দলের লোকজন, ডিলার এবং অসাধু চেয়ারম্যান-মেম্বাররা লুটে নিচ্ছে। বক্তারা বলেন, প্রকৃত গরিব মানুষ এ চাল পাচ্ছে না, অনেক জায়গায় মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে কার্ড বিক্রি হচ্ছে। বক্তারা অবিলম্বে চাল বিতরণে সকল অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ এবং প্রকৃত গরিব মানুষদের মধ্যে চাল বিতরণের জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।
ক্ষেতমজুর সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট সোহেল আহমেদের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রেজা, সহ-সভাপতি সৈয়দ আহমেদ, সদস্য জয়নাল আবেদীন খান, আব্দুল মান্নান, মোতালেব হোসেন, আরিফুল ইসলাম নাদিম প্রমুখ। সমাবেশ পরিচালনা করেন সহ-সাধারণ সম্পাদক অর্ণব সরকার।
সমাবেশে বক্তারা ক্ষেতমজুরসহ গ্রামের গরিব মানুষের প্রকৃত তালিকা সংগ্রহের আহ্বান জানিয়ে বলেন, তালিকা নির্বাচন কমিটিতে ক্ষেতমজুর সমিতির প্রতিনিধি রাখতে হবে। বক্তারা অতীতের গম চুরির বিরুদ্ধে ক্ষেতমজুর সমিতির তীব্র আন্দোলনের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, চাল চুরি বন্ধ না হলে চাল চোরদের বিরুদ্ধেও দেশব্যাপী আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।
বিভিন্ন জেলা-উপজেলায়, গ্রামে-গঞ্জে ১০ টাকা কেজি দরের ‘খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি’ চাল বিতরণে অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে গরিব মেহনতি মানুষকে সাথে নিয়ে প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।