স্ট্যাটাস ডিলিট করতে টাকা দিতে চায় শেরপুরের ছাত্রদল নেতা মতিন

174

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফেসবুকে স্ট্যাটাস ডিলিত করতে পঞ্চাশ টাকায় অফার করেছে শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি কমিটির বিতর্কিত সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতিন। কমিটি গঠনের পর মতিনের বিএনপি ছাত্রদলের প্রমাণ স্বরুপ বিভিন্ন তথ্যাদি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে কেন্দ্রীয় নেতাসহ স্থানীয় ছাত্রলীগের কর্মীরা পোস্ট করতে থাকেন।

সোমবার রাতে ফেসবুকের স্ট্যাটাস থামাতে মতিনের ছাত্রদলের প্রমাণপত্র ফেসবুক থেকে ডিলিট করতে অফার করে যাচ্ছেন।

এছাড়া শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি বাতিল হওয়ায় আরো ক্ষেপে উঠেছে ওই কমিটির বিতর্কিত সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতিন। মতিনের জামায়াত-শিবির সংশ্লিষ্টতা ও নারী কেলেঙ্কারির বিষয় নিয়ে কথা বলায় এবার তার লোকজন শাহরিয়ার মোরসালিন দ্বীপ নামে এক স্কুলছাত্রকে তুলে নিয়ে গেছে। এসময় দ্বীপের বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর করা হয়। এমনি দ্বীপের মাকেও চুল ধরে টানাহেঁচড়া করা হয়। সোমবার দুপুরে শেরপুরের নবীনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

দ্বীপের বাবা মিজানুর রহমান একটি গণমাধ্যমকে ফোনে জানান তিনি বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন। তবে তার বাড়িতে হামলার ঘটনা জানতে পেরেছেন।

তিনি বলেন, হামলায় কারা জড়িত তাৎক্ষণিকভাবে তিনি তা জানতে পারেননি। তবে বিল্লাল নামে স্থানীয় এক যুবলীগ নেতা তাকে জানিয়েছেন, দ্বীপকে বাড়ি থেকে অন্য কোথাও নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বিষয়টি ‘মীমাংসা’ হলে সন্ধ্যায় তাকে ছেড়ে দেয়া হবে।

তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মতিনের সমর্থকরা দ্বীপকে ধরে শেরপুর জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে নিয়ে যায়। সেখানে নজরুল ও মোতালেব নামে আওয়ামী লীগের দুই নেতা দ্বীপকে আটকে রেখেছে। তারা তাকে দিয়ে জোর করে মিথ্যা জবানবন্দী ও সাজানো ভিডিও তৈরি করেছেন।

বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে একাধিক স্ট্যাটাসও দিয়েছেন স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। তাদের বক্তব্য, ছাত্রদল-ছাত্রশিবিরকে ছাত্রলীগে পদায়ন করতে চাওয়ার পরিণতিতেই এসব ঘটনা ঘটছে। এসবের পেছনে জেলা আওয়ামী লীগের কিছু নেতার হাত রয়েছে বলেও তারা দাবি করেছেন।

মিজানুর রহমান জানান, দ্বীপ আগামী ১ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠেয় এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেবে। সে ছাত্রলীগকর্মী নয়। তবে পারিবারিকভাবেই তারা আওয়ামী লীগের সমর্থক। দ্বীপও ভবিষ্যতে ছাত্রলীগের রাজনীতির ব্যাপারে আগ্রহী। এ কারণে মতিনের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে সে হয়তো ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে থাকতে পারে। আর এ কারণেই সে হামলার শিকার হয়েছে।

শেরপুর জেলা ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতিনের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কুৎসা রটনাসহ বিএনপি-জামায়াত সংশ্লিষ্টতা এবং নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় ওঠে। এক পর্যায়ে ওই কমিটি স্থগিত ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম দুপুরে বলেন , তিনি বিষয়টি জেনেছেন। দ্বীপকে উদ্ধারের জন্য পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি জানান।