সুবিধাবাদীরা উইপোকার মতো দলকে খেয়ে ফেলবে–কাদের

31

বরিশাল অফিসঃ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মনে রাখতে হবে আওয়ামী লীগ ত্যাগী নেতাদের পার্টি। আমাদের যে নেতাকর্মী আছে তা যথেষ্ট। শীতের পাখি,অতিথি পাখি আমাদের দরকার নেই। পোস্টার দিয়ে নেতা হওয়া যায় না। ছবি দিয়ে নেতা হওয়া যায় না। নেতা হতে হলে,মানুষকে ভালবাসতে হবে,মানুষের ভালবাসা অর্জন করতে হবে। আমাদের খারাপ লোকের দরকার নেই। সুবিধাবাদীরা উইপোকার মতো দলকে খেয়ে ফেলবে।

আজ বরিশাল বঙ্গবন্ধু উদ্যানে মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষকি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশকে বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে। আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হলে ত্যাগী নেতাদের বাঁচাতে হবে। সাচ্ছা লোকদের কোনঠাসা করে আওয়ামী লীগ বাঁচবে না। যেকোনো মূল্যে আওয়ামী লীগকে ঐক্যবদ্ধ রাখতে হবে।

তিনি বলেন, বরিশাল একটি ডিভিশনাল হেডকোয়ার্টার। এখানে অবশ্যই ফোরলেন যুক্ত হবে, বরিশাল থেকে ফরিদপুর এডিবির অর্থায়নে আমরা ফোর লেন করবো। বরিশাল-ভোলা সেতু নির্মাণের ফিজিবিলিটি স্টাডির কাজ আমরা শেষ করেছি। সেদিন বেশী দূরে নয়,যেদিন পদ্মা সেতু পার হয়ে বরিশাল আসবেন।

তিনি আরও বলেন,প্রধানমন্ত্রী আমাকে নির্দেশ দিয়েছেন, বরিশালের রাস্তাঘাটসহ কোনো সড়ক, সেতু এবং যোগাযোগের অন্য কোনো ঘাটতি যেন না থাকে। তিনি বলেন,শেখ হাসিনা তাকলে আপনারা সব পাবেন।

প্রধান অতিথি বলেন, বিএনপি আওয়ামী লীগের সাথে উন্নয়নে পারে না,ষড়যন্ত্র করেও পারে না। তাই চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে।আমাদের সাবধান হতে হবে।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি আন্দোলনে ব্যর্থ, নির্বাচনেও ব্যর্থ। নয়াপল্টনে তাদের এক আবাসিক প্রতিনিধি রয়েছে, যিনি সেখানে বসে বসে প্রেস ব্রিফিং করেন আর গলাবাজি করেন।

তিনি বলেন, বরিশালে কী দিয়েছে বিএনপি? একটা রাস্তা, একটা ব্রিজ; কিছুই করেনি, কোথাও কোনো উন্নয়ন নেই। বিএনপির আছে সন্ত্রাস, দিয়েছে দুর্নীতি, লুটপাট আর হাওয়া ভবন। হাওয়া ভবন মানে খাওয়া ভবন। কিন্তু আওয়ামী লীগের কোন হাওয়া ভবন নেই।

সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন দলের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এমপি।
এ ছাড়া বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী স.ম রেজাউল করিম, পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব) জাহিদ ফারুক শামীম, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ.ফ.ম বাহাউদ্দিন নাছিম, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদ।

বঙ্গবন্ধু উদ্যানে বেলা সোয়া ১১টার দিকে শান্তির প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে সম্মেলনের উ‌দ্বোধন ক‌রেন আওয়ামী লী‌গ উপ‌দেষ্টা মন্ডলীর সদস্য আমির হো‌সেন আমু এমপি।

সম্মেলনের শুরু‌তে শু‌ভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লী‌গের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সি‌টি মেয়র সের‌নিয়াবাত সা‌দিক আব্দুল্লাহ।
সাংগঠ‌নিক প্র‌তি‌বেদন পেশ ক‌রেন মহানগ‌র সাধারণ সম্পাদক একেএম জাহাঙ্গীর। সভাপতিত্ব করেন মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম আব্বাছ চৌধুরী দুলাল।

সম্মেলনে উদ্বোধনী সমাবেশ শেষে বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম জাহাঙ্গীর ও সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ নাম ঘোষণা করা হয়।