সুন্দরবনে বন্দুক যুদ্ধে ৩ জলদস্যু নিহত; ২ র‌্যাব সদস্য আহত

মোংলা থেকে মোঃ নূর আলমঃ সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের পশুর নদী সংলগ্ন খন্তা-কদাইল্লা খালে আজ সকালে র‌্যাবের সাথে জলদস্যু বাহিনীর গুলি বিনিময় হয়েছে। এসময় জলদস্যু রানা বাহিনীর প্রধানসহ ৩ জলদস্যু নিহত ও ২ র‌্যাব সদস্য আহত। ঘটনাস্থল থেকে ৪টি দেশী অস্ত্র উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

র‌্যাব-৬ এর অপারেশন কর্মকর্তা মেজর মোঃ শামীম সরকার জানান জলদস্যুরা সুন্দরবনে খন্তা-কদাইল্লা খাল এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি গ্রহণ করছে জেলেদের দেয়া এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে র‌্যাব সদস্যরা উপস্থিত হলে জলদস্যুরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি করতে থাকে। র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়। এমতাবস্থায় মুমূর্ষ অবস্থায় ৩ জলদস্যুকে মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনলে চিকিৎসকরা তাদের মৃত ঘোষণা করেন। নিহত জলদস্যুরা হলো বাগেরহাট জেলার মোড়েলগঞ্জ থানার গাবগাছিয়া গ্রামের পান্না ওরফে রানা (২৮) পিতা-মুত লুৎফর শেখ, বলইবুনিয়া গ্রামের জুলহাস (৩২) পিতা-মৃত মোঃ হাবিবুর রহমান ও বলইবুনিয়া গ্রামের মোঃ কামরুজ্জামান (৩৯) পিতা-মৃত আব্দুল মজিদ শেখ। আহত দুই ২ র‌্যাব সদস্যর নাম আসিফ ইকবাল ও আব্রাহাম লিংকন। আহতদেরও মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ৪টি অস্ত্র উদ্ধার করেছে র‌্যাব। এব্যাপারে র‌্যাবের পক্ষ থেকে মোংলা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মেজর শামীম সরকার আরো জানান জলদস্যু রানা বাহিনী জেলেদের কাছ থেকে নিয়মিত চাঁদা আদায় করতো এবং তাদের উপর নির্যাতন চালাতো।