‘সাকা-মুজাহিদের পরিবার স্বজন হারানোর বেদনা বুঝবে’

115

যুগবার্তা ডেস্কঃ একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী এবং জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের প্রাণভিক্ষা প্রসঙ্গে শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. আলীম চৌধুরীর মেয়ে ডা. নুজহাত চৌধুরী বলেন, তারা কেন প্রাণভিক্ষা চেয়েছেন? তাদের সেই দম্ভ ও ঔদ্ধত্য কোথায় গেল? এখন বুঝবে প্রাণের মায়া কী জিনিস? আজকে তাদের পরিবাররা বুঝবেন স্বজন হারানোর বেদনা।
শনিবার সাকা ও মুজাহিদের প্রাণভিক্ষাকে কেন্দ্র করে একাত্তর টেলিভিশনের এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন ডা. নুজহাত চৌধুরী।
তিনি বলেন, আমরা মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তি। আইনের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা আছে। এই শ্রদ্ধা থেকেই আমরা যুদ্ধাপরাধীদের বিরুদ্ধে লড়াই করেছি। আমাদের বিশ্বাস, এই দেশে কোনো একদিন যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি হবে। আজকে ফাঁসি হচ্ছে। আইনের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধাশীল রয়েছে এবং থাকবে।
ডা. নুজহাত চৌধুরী আরো বলেন, তারা বাংলাদেশকে ক্ষমা করেনি। তারা ক্ষমা চাইতে পারেন না। কিন্তু সংবিধানে ক্ষমার বিধান থাকলে তাতে বলার কিছু নেই। কিন্তু অন্যদেশে যুদ্ধাপরাধীদের এত আপিলের সুবিধা দেয়া হয় না। গোলাম আজমকে বয়সের জন্য মুক্ত করে দিয়ে আচার খাইয়ে বাঁচিয়ে রাখা। মারা যাওয়ার পর তাকে রাজকীয় জানাজার ব্যবস্থা করা। আর সেই জানাজার দৃশ্য মিডিয়াগুলো হিরোর মত সরাসরি সম্প্রচার করে। এরকম সম্প্রচার করে আমাদের শহীদ পরিবারের বুকে প্রত্যেকে পদাঘাত করছেন।